২০ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মেঘ দেখলেই বাঁজে ছুটির ঘন্টা

মেঘ দেখলেই বাঁজে ছুটির ঘন্টা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ এলজিইডি কর্তৃক স্কুল ভবন পরিত্যক্ত ঘোষনার পর পুরো বর্ষা মৌসুমে বাধ্য হয়ে খোলা আকাশের নীচে ক্লাস নিতে হচ্ছে জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নে ৫৪নং রঘুনাথদ্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। ফলে মেঘ দেখলেই ছুটির ঘন্টা বাঁজে ওই স্কুলে।

স্কুলের দুই শিফটে মোট ১৬৫জন শিক্ষার্থী রয়েছে। ঝড় ও বৃষ্টি শুরুর পর পরিত্যক্ত স্কুল ভবনের বারান্দায় শিক্ষকরা উপস্থিত থাকলে ক্লাস নেওয়ার কোন সু-ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টি শুরু হলেই স্কুলের পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। সূত্রমতে, স্থানীয় এলজিইডি বিভাগ থেকে স্কুল ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণার পর নিরাপদ ভবন ও শ্রেনী কক্ষ না থাকায় প্রতিনিয়ত ওই স্কুলে পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে ।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসনেয়ারা বেগম বলেন, বিদ্যালয় ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষনার পর থেকে গত দুই মাস ধরে স্কুল মাঠে খোলা আকাশের নিচে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানো হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আকাশে মেঘ জমলেই তাদের দুশ্চিন্তা বেড়ে যায়। তাই বৃষ্টি শুরু হলেই স্কুল বন্ধ রাখতে বাধ্য হচ্ছি। ফলে চলতি বর্ষা মৌসুমে স্কুলে শিক্ষার্থীর সংখ্যা দিন দিন কমেই চলেছে।

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, অধিক ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় গত দুই মাস পূর্বে জরাজীর্ণ ওই বিদ্যালয়ের ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যালয়ের তালিকায় রঘুনাথদ্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম অর্ন্তভূক্তি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। সূত্রে আরও জানা গেছে, উপজেলা শিক্ষা অফিস থেকে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে পরিত্যক্ত স্কুল ভবনের পাশে একটি টিন সেড অস্থায়ী স্কুল ঘর তৈরির কাজ চলছে। ওই কাজ শেষ হলেই সেখানে ক্লাস নেওয়া হবে।