২০ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্যর্থতার দায় মাথা পেতে নিলেন ফিঞ্চ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সেমিফাইনালে আয়োজক ইংল্যান্ডের কাছে বড় হারে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় হয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। উসমান খাজা আর শন মার্শের মতো অভিজ্ঞ দুই ব্যাটসম্যান ইনজুরির কারণে আগেই ছিটকে গিয়েছিলেন। পুরোপুরি ফিট ছিলেন না দুই অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সয়েল আর মার্কাস স্টয়নিসও। তাই বলে মাত্র ২২৩ রানে অলআউট হয়ে ১৭ ওভার ৫ বল আগে ৮ উইকেটের হার অসিদের সঙ্গে যায় না। যারা আসরজুড়ে চমৎকার ক্রিকেট উপহার দিয়েছিল। তবে কোনরকম অজুহাত না দিয়ে ব্যর্থতার দায় মাথা পেতে নিয়েছেন এ্যারন ফিঞ্চ, ‘হ্যাঁ, আমরা বেশ কয়েকটি ইনজুরি নিয়ে এখানে এসেছি। কিন্তু এটি কোন অজুহাত হতে পারে না। আমরা জিততে চেয়েছিলাম কিন্তু সেটি পারিনি’ বলেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক। পাশাপাশি সেমিতে প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ডেরও প্রশংসা করেছেন তিনি। বলেছেন আয়োজকরা ভাল খেলেই ফাইনালে উঠেছে।

এ্যারন ফিঞ্চ বলেন, ‘ইংল্যান্ড দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে। জানি তারা কতটা শক্তিশালী ও আধিপত্য বিস্তারকারী। আমরা আমাদের সেরাটা দিতে পারিনি। একটি ভাল দলের কাছে বিধ্বস্ত হয়েছি।’ অস্ট্রেলিয়ার হারের পেছনে ম্যাচের প্রথম ১০ ওভারে দলের ব্যাটিং বিপর্যয়কে বড় করে দেখছেন ফিঞ্চ। অসি অধিনায়ক মনে করেন, সে সময় খুব ভাল লেংথে বোলিং করে ম্যাচের সুরটা বেঁধে দিয়েছিল ইংল্যান্ড। বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে বৃহস্পতিবার স্বাগতিকদের কাছে ৮ উইকেটে হারে অস্ট্রেলিয়া। নিজেদের ইতিহাসে এবারই প্রথম বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হারল গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। শেষ চার থেকে দলের বিদায়ে ভীষণ হতাশ ফিঞ্চ মনে করেন, বাজে শুরুর ধাক্কা ম্যাচে আর কাটিয়ে উঠতে পারেননি তারা, ‘যেভাবে ওরা প্রথম ১০ ওভারে আমাদের ৩ উইকেটে ২৭ রানে আটকে রেখেছিল সেটাই ম্যাচের সুর বেঁধে দিয়েছিল। ওরা খুব ভাল লেংথে বোলিং করেছে।’ ইংলিশদের মতো নতুন বলে অমন শুরু চেয়েছিল অস্ট্রেলিয়াও। অথচ তারা জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টোর উদ্বোধনী জুটি বিচ্ছিন্ন করতে পারে অষ্টাদশ ওভারে গিয়ে।’

অসি অধিনায়ক মনে করেন, খুব ভাল খেলেই স্বাগতিকরা ম্যাচ বের করে নিয়েছে, ‘আমরা উইকেট নেয়ার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু ওরা খুব ভাল খেলেছে। আমরা জানি ওরা কতটা শক্তিশালী ও আধিপত্য বিস্তার করতে পারে। আমরা যতটা পারতাম পরিকল্পনা ততটা বাস্তবায়ন করতে পারিনি। লীগপর্বের সর্বশেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। শেষ চার থেকে বিদায় নেয়ার পর অধিনায়ক জানিয়েছেন, প্রোটিয়াদের কাছে হার নিয়ে কোন আক্ষেপ নেই তাদের,‘সব দলকেই আপনার হারাতে হবে। আমরা এই ম্যাচ খেলতে এসেছিলাম কিছু চোট সমস্যা নিয়ে। তবে এই হারের জন্য সেগুলো কোন অজুহাত নয়। আমরা এখানে জেতার জন্য এসেছিলাম কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে সেটি হয়নি।’