২৬ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জাতির পিতা নারীদের ক্ষমতায়ন করেন : মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

জাতির পিতা নারীদের ক্ষমতায়ন করেন : মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই প্রথম বাংলাদেশে নারীদের ক্ষমতায়ন করেন। জাতির পিতাই দেশে নারীদের প্রথম রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন।

মঙ্গলবার রাজধানীতে অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণার্থীদেও সঙ্গে মতবিনিময়, ভাতা ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাতীয় মহিলা সংস্থার বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমতাজ বেগম এ্যাডভোকেট। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার।

প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উপলব্ধি করছিলেন দেশের জনসংখ্যার অর্ধেক নারীকে বাদ দিয়ে সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। সেজন্য তিনি নারী উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেছিলেন। জাতির পিতাই প্রথম বাংলাদেশে নারীদের রাজনীতির সুযোগ করে দিয়েছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশের নারীদের অর্থনৈতিক, সামাজিক, প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক উন্নয়ন হয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার আগে এদেশের নারীরা স্পিকার, বিচারপতি ও সচিব হতে পারতনা। এই সরকারের সময়ই নারীরা সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল হতে পেরেছেন।

তিনি বলেন, যেসব নারী সফল হয়েছেন তাদের কাছ থেকে শিক্ষা নিয়ে অন্যদের এগিয়ে যেতে হবে। প্রশিক্ষনার্থিদের উদ্দেশ্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করে ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালের উন্নত দেশে নারী অগ্রগামী ভূমিকা পালন করবে।

প্রশিক্ষণার্থিদের মধ্যে থেকে উদ্যোক্তা রোকসান আক্তার দিপু বলেন, তিনি জাতীয় মহিলা সংস্থা থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে বুটিক ও পার্লার স্থাপন করেছেন এবং ঢাকায় ছয়তলা বাড়ি তৈরি করেছেন। বিশ্বের ২৭ টি দেশ ভ্রমণ করেছেন।

প্রতিমন্ত্রী প্রশিক্ষণার্থীদের তৈরি খাদ্য ও ফ্যাশন ডিজাইনসহ বিভিন্ন শাখা ঘুরে দেখেন। অনুষ্ঠানে শেষে তিনি বিভিন্ন ট্রেডের অংশ গ্রহণকারীদের প্রশিক্ষণার্থিদের মধ্যে সনদ ও ভাতা বিতরণ করেন।