২৪ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে মলম পার্টির সাত সদস্যসহ গ্রেফতার ১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঈদকে সামনে রেখে চলমান সাঁড়াশি অভিযানে রাজধানী থেকে অজ্ঞান ও মলম পার্টির সাত সদস্য এবং জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট থেকে সাত দালাল র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। এছাড়া আব্দুল্লাহপুর মাছের আড়তে ২০ মণ জেলীযুক্ত চিংড়ি ধ্বংস করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গ্রেফতারকৃত দালালদের র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে।

গত সোমবার সন্ধ্যায় সোয়া ছয়টার দিকে র‌্যাব-১ এর একটি দল ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ অজ্ঞান ও মলম পার্টি চক্রের সক্রিয় সাত সদস্যকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, মোশারফ হোসেন মাহিন (২৪), মোঃ আমিনুল ইসলাম (২০), মোঃ চাঁদ হাওলাদার (১৯), মোঃ রবিন মিয়া (২৫), মোঃ বাবু (৩০), মোঃ রফিক (২০) ও সঞ্চিত দাস (১৯)। তাদের কাছে থাকা মানুষ অজ্ঞান করার মালামাল হাতিয়ে নেয়ার কাজে ব্যবহৃত মলম, ব্লেডসহ অন্যান্য আলামত জব্দ হয়।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মোঃ সারওয়ার-বিন-কাশেম জানান, গ্রেফতারকৃতরা সংঘবদ্ধ অজ্ঞান ও মলম পার্টির সদস্য। তাদের প্রধান টার্গেট বিদেশ থেকে দেশে আসা ব্যক্তিরা। চক্রের সদস্যরা অনেক সময় গাড়ি ভাড়ার কাজ করে। কেউ বিদেশ থেকে এসে গাড়ি ভাড়া নিলে তাকে টার্গেট করে। মালামাল তুলে নিয়ে গন্তব্যে যাওয়ার পথে সুবিধাজনক জায়গায় যাত্রীদের চোখে মলম লাগিয়ে দিয়ে বা চেতনানাশক কিছু দিয়ে যাত্রীদের অজ্ঞান করে সঙ্গে থাকা মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃতদের এবারের টার্গেট ছিল হজযাত্রীরা। পবিত্র হজব্রত পালন করতে যাওয়া ব্যক্তিরা সঙ্গে টাকা পয়সা নিয়ে যায়। যাত্রীদের আশকোন হজক্যাম্প থেকে এয়ারপোর্টে যাওয়ার সময় তাদের চোখে মলম লাগিয়ে সঙ্গে থাকা টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা ছিল তাদের। অনেক হাজী ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার করেন। ওভারব্রিজের ওপর হাজীদের টার্গেট করত গ্রেফতারকৃতরা। এদিকে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজধানীর শেরেবাংলানগর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে এবং শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে সাত দালালকে গ্রেফতার করেছে।