২২ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

৯৫৯ পরীক্ষার্থীর সবার উত্তরপত্র একই!

  • দৃশ্যপট গুজরাট

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বিহারের ছবি এবার ধরা পড়ল মোদির রাজ্যে। গুজরাটে কিছুদিন আগেই শেষ হয়েছে দ্বাদশ শ্রেণীর বোর্ডের পরীক্ষা। আর সেই খাতা দেখতে গিয়েই রীতিমতো চক্ষু চড়কগাছ রাজ্যের ‘সেকেন্ডারি এ্যান্ড হায়ার সেকেন্ডারি এডুকেশন বোর্ড’-এর শিক্ষকদের। কারণ তারা দেখেন একই ভুল একইভাবে ধরা পড়েছে ৯৫৯ জন পরীক্ষার্থীর উত্তরপত্রে! শুধু তাই নয়, সবার উত্তর, সবার ভুল এবং সবার সঠিক উত্তর একই। যা হওয়া সহজে সম্ভব নয়। ফলে বোঝাই যায় গণ-টোকাটুকি হয়েছে পরীক্ষায়।

গণ-টোকাটুকির বিষয়টি সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেন রাজ্যের বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এই ঘটনায় যে সমস্ত পরীক্ষার্থীর নাম সামনে এসেছে তাদের ফল ২০২০ সাল পর্যন্ত আটকে রাখা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, গুজরাটের গির-সোমনাথ এবং জুনাগড় জেলাতে সবচেয়ে বেশি ঘটেছে এই গণ-টোকাটুকির ঘটনা। ‘সেকেন্ডারি এ্যান্ড হায়ার সেকেন্ডারি এডুকেশন বোর্ড’ সূত্রে খবর, ইংরেজী, অর্থনীতি, স্ট্যাটিসটিক্স এবং এ্যাকাউন্টেন্সিতে গণ-টোকাটুকির হার সবচেয়ে বেশি। সবাই একই রচনাও লিখেছে ইংরেজীতে।

যদিও ছাত্রদের দাবি, এই উত্তর শিক্ষকেরই দেয়া। তাছাড়া বহু ছাত্রই বার্ষিক ফি ৩৫ হাজার টাকা দিয়ে দিয়েছে। এগুলি সেলফ ফিন্যান্সড কোর্স। এখানের ছাত্রছাত্রীরা নিয়মিতও বটে। এই অভিযোগ সঠিক নয়। এই দাবি করা হলেও গুজরাটে দ্বাদশ শ্রেণীর বোর্ড পরীক্ষায় এই টোকাটুকির ঘটনা ছাপিয়ে গিয়েছে আগের সব ক’টি ঘটনাকেই বলে মনে করা হচ্ছে।