২৪ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অর্জন প্রচারে গণমাধ্যমের সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিডিনিউজ ॥ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্জন প্রচারে গণমাধ্যমের সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে এ মোমেন। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে নতুন একটি বাংলা স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা রচনার ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে বেশ কিছু অর্জিত হয়েছে বাংলাদেশের। সেই অর্জনগুলো বস্তুনিষ্ঠভাবে উপস্থাপনের জন্য গণমাধ্যমের আন্তরিক সহযোগিতা চাই। একইসঙ্গে প্রবাসী প্রজন্মকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সম্পর্কে অবহিত এবং বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় পুরো জনগোষ্ঠীকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্যও গণমাধ্যমের ভূমিকা অপরিসীম।

নিউইয়র্কে বসবাসরত শাহ জে চৌধুরীর মালিকানাধীন ‘বাংলা চ্যানেল’ নামে এ টিভির ‘কোটি প্রাণ একসাথে’ স্লোগানে উদ্বোধনী সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। শামীম আল আলামিনের সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য দেন চ্যানেলটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ফৌজিয়া চৌধুরী। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসার, লেখক ও মানবাধিকার সংগঠক পার্থ ব্যানার্জী ও সাংবাদিক মাহফুজুর রহমান। অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা, নিউইয়র্কের স্টেট এ্যাসেম্বলিওম্যান ক্যাটালিনা ক্রুজ, স্টেট এ্যাসেম্বলিম্যান ডেভিড ওয়েপ্রিন, কুইন্স ডিস্ট্রিক্ট ডেমক্র্যাটিক পার্টির লিডার এ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমেদ, যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের মিয়া, ডেমোক্র্যাট ফাহাদ সোলায়মান, রথীন্দ্রনাথ রায় ও শহীদ হাসান, মোহাম্মদ এন মজুমদার, নাঈমা খান, মোর্শেদ আলম, কাজী নয়ন, শাহনেওয়াজ, এনাম, আশরাফুজ্জামান, মোর্শেদা জামান, আশরাফুজ্জামান, শামসুদ্দিন বশির, ইয়াকুব এ খান, তৈয়বুর রহমান হারুন, এম এ বাতিন, রেজাউল বারি, শুভ রায়, গোপন সাহা, সবিতা দাস, জাফরউল্লাহ, এটিএম মাসুদ, তপন মোদক, শাহ শহীদুল হক সাঈদ ও নাজিমউদ্দিন। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর আহ্বানে ওয়াশিংটন ডিসিতে চলমান একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দিতে মঙ্গলবার নিউইয়র্কে এসেছেন মোমেন। শুক্রবার ঢাকার উদ্দেশে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়ার আগে বস্টনের হার্ভার্ডে রোহিঙ্গা ইস্যুতে এক সেমিনারে বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে তার।

নির্বাচিত সংবাদ