২৪ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আদালতের নিরাপত্তা নিশ্চিতে সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা নিন

  • রাষ্ট্রপতির আহ্বান

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ হাইকোর্টসহ দেশের সকল আদালতের নিরাপত্তা নিশ্চিতে সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকার ও সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বাংলাদেশ সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির একটি প্রতিনিধি দল বুধবার বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাত করে সম্প্রতি কুমিল্লার একটি আদালতে সংঘটিত হত্যার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এ ক্ষেত্রে রাষ্ট্রপতির সহযোগিতা চাইলে রাষ্ট্রপ্রধান এ নির্দেশনা দেন। খবর বাসসর।

সাক্ষাত শেষে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন বলেন, আইনজীবী সমিতি রাষ্ট্রপতির কাছে হাইকোর্টে বিচারপতি নিয়োগের জন্য একটি নীতিমালা প্রণয়নেরও দাবি জানান। রাষ্ট্রপতি আইনজীবীদের রাজনৈতিক দলমত নির্বিশেষে তাদের পেশাগত দায়িত্ব পালনের পরামর্শ দেন। প্রেস সচিব রাষ্ট্রপতিকে উদ্ধৃত করে বলেন, ‘আইনজীবীরা বিচার বিভাগের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তারা বিচারপ্রার্থীদের সুবিচার প্রাপ্তি নিশ্চিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।’ রাষ্ট্রপতি আইনজীবীদের বিচারপ্রার্থীদের প্রতি আরও সহায়তাপূর্ণ আচরণেরও উপদেশ দেন, যাতে অর্থের অভাবে যেন কোন বিচারপ্রার্থী সঠিক আইনী সহায়তা থেকে বঞ্চিত না হয়। রাষ্ট্রপতি আইনজীবী প্রতিনিধি দলকে আইনপেশার সুনাম সমুন্নত রাখার আহ্বান জানান। সমিতির সভাপতি এএম আমিন উদ্দিনের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল রাষ্ট্রপতিকে সুপ্রীম আইনজীবী সমিতির সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যদের মধ্যে ছিলেন- সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুল বাতেন, সহ-সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন প্রমুখ। বঙ্গভবনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ফরাসি রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাত ॥ বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত মারি-এনিক বুর্দিন বুধবার বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাত করেছেন।

রাষ্ট্রপতির প্রেসসচিব মোঃ জয়নাল আবেদিন জানান, সাক্ষাতকালে বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, এ সম্পর্ক পর্যায়ক্রমে সম্প্রসারিত হয়ে চলেছে। বাংলাদেশে সফলভাবে কার্যমেয়াদ সম্পন্ন করার জন্য রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের জনগণের মধ্যে সংযোগ দিনে দিনে বৃদ্ধি পেয়েছে।

রাষ্ট্রপতি হামিদ বলেন, ‘ফ্রান্স বাংলাদেশী পণ্য রফতানির উত্তম গন্তব্য। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেয়ার জন্য আমি ফ্রান্সের সরকার ও জনগণের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’ রাষ্ট্রপতি দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আগামী দিনগুলোতে আরও জোরদার হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

এই মাত্রা পাওয়া