১৯ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খুলনায় ফেরিঘাটের টেন্ডার নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ দিঘলিয়ায় নগরঘাট ফেরিঘাটের টেন্ডার প্রক্রিয়ায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী তাপসী দাশের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনা প্রেসক্লাবে

আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দিঘলিয়া উপজেলার দিঘলিয়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোল্যা ফিরোজ হোসেন এ অভিযোগ করে বলেন, পছন্দের ব্যক্তিকে ঘাটের ইজারা পাইয়ে দিতে অনিয়ম ও দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে। অবশ্য এ বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী তাপসী দাশ তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ফিরোজ হোসেনের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। নগরঘাটার ইজারা নিয়মতান্ত্রিকভাবে হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে দিঘলিয়া ইউপি চেয়রম্যান অভিযোগ করে বলেন, গত ২৬ মে নগরঘাটা ফেরিঘাটের ইজারার দরপত্র বিক্রয়ের শেষ দিন ছিল। দরপত্র জমাদানের (ড্রপিং) শেষ দিন ছিল ২৭ মে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। দরপত্র জমাদানের নির্ধারিত সময় শেষ হয়ে যাওয়ার পর বেলা ৩টার দিকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়ে অফিস পিওন একটা দরপত্র নিয়ে আসে। পরে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা যোগসাজশে নিয়ম বহির্ভূতভাবে একটি দরপত্র দাখিল করে। এ বিষয়ে তিনি সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবর পুনরায় দরপত্র আহ্বানের আবেদন করেন। কিন্তু নির্বাহী প্রকৌশলী নানা টালবাহানার মাধ্যমে সময় ক্ষেপণ করতে থাকেন।