২৬ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খালেদার মুক্তি দাবিতে বিএনপির মিছিল

খালেদার মুক্তি দাবিতে বিএনপির মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি। তবে এ মিছিলে রুহুল কবির রিজভী ছাড়া উল্লেখযোগ্য কোন নেতাকে দেখা যায়নি। মঙ্গলবার বিকেলে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয় সংলগ্ন এলাকায় মিছিল করে তারা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে বিকেল ৪টায় বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিল শুরু করে বিজয়নগর নাইটিঙ্গেল মোড়ে ঘুরে আবার বিএনপি কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিল ষেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, জনগণের কল্যাণ নয়, বরং লুটের রাজত্ব কায়েম করতেই বর্তমান সরকার ক্ষমতার জোরে ‘গণতন্ত্রের মা’ খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করে রেখেছে।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে রিজভী বলেন, গরিবের টাকা চুরি ও তাদের পেটে লাথি মারতে এখন ছোট ছোট ব্যবসায়ীদেরও ওপরও করের বোঝা চাপানো হচ্ছে। এরই মধ্যে প্রায় পৌনে দুইশ পণ্য উৎপাদন, সরবরাহ ও সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে ব্যবসায় নিবন্ধন নেওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। যা ভ্যাট নিবন্ধন হিসেবে পরিচিত। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) রবিবার এ সংক্রান্ত আদেশ দিয়েছে। ভ্যাট নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

রিজভী বলেন, ছোট ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ওপর ভ্যাট আরোপের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং এ ধরনের গণবিরোধী সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। শেয়ারবাজারে ধ্বসের জন্য সরকারকে দায়ী করে তিনি বলেন, অবিলম্বে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রণের দাবি জানাচ্ছি।

রিজভী বলেন, শেয়ারবাজারে এক দিনেই চার হাজার ৩৫৮ কোটি টাকার বেশি দর হারিয়েছে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলো। এতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছেন ঋণগ্রস্থ বিনিয়োগকারীরা। তাই এখন শেয়ারবাজারের সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক বেড়েছে। ৩০ জুন ২০১৯-২০ অর্থরের বাজেট পাস হওয়ার পর থেকে সোমবার পর্যন্ত মাত্র ১৫ কার্যদিবসে বিনিয়োগকারীদের লোকসান হয়েছে প্রায় ২৭ হাজার কোটি টাকা। শেয়ারের মূল্যমান কমে যাওয়ায় প্রায় ৪ লাখ কোটি টাকা থেকে ডিএসইর বাজার মূলধন নেমে এসেছে ৩ লাখ ৭৩ হাজার কোটি টাকায়। শেয়ারবাজারে এই ব্যাপক ধ্বসের জন্য সরকার দায়ী।