২০ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রথমবারের মতো বালিশ পেলেন রাজশাহী কারাগারের ২৭৫০ বন্দী

প্রথমবারের মতো বালিশ পেলেন রাজশাহী কারাগারের  ২৭৫০ বন্দী

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ প্রথমবারের মতো রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের কয়েদি ও হাজতিরা পেলেন বালিশ। আগে শুধু তিনটি করে কম্বল দেওয়া হলেও এখন সরকারের পাইলট প্রকল্পের অংশ হিসেবে একটি কম্বল কমিয়ে দুটি কম্বলের সঙ্গে একটি করে বালিশ দেওয়া হলো।

আজ বুধবার সকালে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের ২ হাজার ৭৫০ জন কয়েদী ও হাজতির মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে বালিশ বিতরণ করা হয়। রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার হালিমা খাতুন সব কয়েদীদের মধ্যে বালিশ বিতরণ করেন। এসময় জেলার হাবিবুর রহমান, ডেপুটি জেলার সাইফুন বাকিরা সুমাইয়া ছাড়াও কারা কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার হালিমা খাতুন জানান, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বড় বড় কারাগারে পাইলট প্রকল্প হিসেবে হেড কোয়ার্টার থেকে বালিশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে বুধবার রাজশাহী কারাগারে বন্দী সকল কয়েদী ও হাজতিরা একটি করে বালিশ পেলেন।

তিনি জানান, আগে থেকে কারাগারের নিয়ম অনুযায়ী হাজতি কিংবা কয়েদীদের জন্য তিনটি করে কম্বল বরাদ্ধ ছিলো। তিনটি কম্বলের মধ্যে একটি বিছানায়, একটি গায়ে দেওয়ার জন্য ও আরেকটি ভাজ করে বালিশ হিসেবে ব্যবহার হতো। এটি অনেকটা কস্টকর। তাই সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হেড কোয়ার্টার থেকে সরবরাহ বালিশ বিতরণ করা হয়েছে। প্রথমবারের মত বালিশ পেয়ে কয়েদী ও হাজতিরা অনেক খুশি। তারা আনন্দ প্রকাশও করেছেন বলে জানিয়েছেন সিনিয়র জেলা সুপার হালিমা খাতুন।