১৮ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশাল জুড়ে শোকের তোরণ

বরিশাল জুড়ে শোকের তোরণ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে ঘাতকের নির্মম বুলেটে শাহাদাৎবরন করেছেন বরিশালের তৎকালীন গৌরনদী বর্তমান আগৈলঝাড়া উপজেলার কৃতি সন্তান বঙ্গবন্ধুর বোন জামাতা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ও তার পরিবারের ছয়জন সদস্য।

সেই থেকে ১৫ আগস্ট ভয়াল কালরাতে শহীদদের স্মরণে প্রতিবছরের ন্যায় অন্যান্য জেলা ও উপজেলার চেয়ে এবারও মাসব্যাপী শোকের মাস পালনে ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন করেছেন জেলার গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং তার সকল সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শোকের মাসের প্রথমদিন থেকেই ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কসহ দুই উপজেলাজুড়ে প্রায় তিন শতাধিক শোকের তোরণ নির্মান করা হয়েছে। গতবছরের ন্যায় এবারও জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলুর উদ্যোগে গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনকে শোকের চাদরে মুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও দলীয় ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসে নানান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সূত্রমতে, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকের নির্মম বুলেটে বরিশাল-১ (গৌরনদী-আগৈলঝাড়া) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মন্ত্রী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর পিতা তৎকালীন মন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর বোন জামাতা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, শিশু পুত্র সুকান্ত বাবু সেরনিয়াবাত, বোন বেগম আরজু মনি, বেবী সেরনিয়াবাত, ভাই আরিফ সেরনিয়াবাত ও চাচাতো ভাই শহিদ সেরনিয়াবাত শহীদ হয়েছিলেন। সেদিন ঘাতকের নির্মম বুলেটে ক্ষতবিক্ষত হয়েও প্রানে বেঁচে যাওয়ার পর আজও শিশু পুত্র সুকান্ত বাবু সেরনিয়াবাতের স্মৃতি বহন করে চলছেন তার মা সাহান-আরা বেগম ও বাবা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ।