২৪ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হংকং বিক্ষোভের মাসুল অর্থনীতিতে

এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক আর অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখোমুখি হংকং। ওয়াল্ট ডিজনি থেকে ম্যারিয়ট- আন্দোলনের উত্তাপ লাগছে বৈশ্বিক বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলোর গায়ে। ডয়েচে ভেলে।

হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী কেরি লাম বলেছেন, আন্দোলনকারীদের কারণে এমন অবস্থা তৈরি হচ্ছে, ‘যেখান থেকে ফিরে আসা কঠিন হয়ে যাবে।’ বিক্ষোভকারীরা শহরজুড়ে আতঙ্ক আর সহিংসতা ছড়িয়ে দিচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। প্রত্যর্পণ বিল শুধু নয়, কেরি লামের পদত্যাগের দাবিতে ফুঁসছে হংকং। হংকংয়ের ওয়াল্ট ডিজনির ডিজনিল্যান্ডে নেই মানুষের আনাগোনা। চলমান বিক্ষোভের কারণে এই বিনোদন কেন্দ্রের প্রতি আগ্রহ হারিয়েছে মানুষ। মার্কিন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী বব ইগার স্বীকার করেছেন এই দুরবস্থার কথা। হংকংয়ের ফ্ল্যাগশিপ এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠান ক্যাথে প্যাসিফিক বলছে, জুলাই থেকে টিকেটের চাহিদা অনেক কমে গেছে। অল্পসংখ্যক মানুষ এসেছে শহরে।

নির্বাচিত সংবাদ