২৪ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সামাজিক দায়বদ্ধতার নতুন পথ

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ নিভৃত গ্রামে আমতলী মডেল ফাউন্ডেশন এবারের কোরবানির ঈদে সামাজিক দায়বদ্ধতায় নতুন পথ দেখিয়েছে। বগুড়ার নগরী থেকে প্রায় ২৬ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমের একটি গ্রাম আমতলী। এই গ্রাম ও আশপাশের কয়েক গ্রামের বয়স্ক বিধবা ও অতি বয়স্ক ব্যক্তিদের ঈদের আনন্দ ফিকে হয়ে যায়নি। তাদের মুখে তৃপ্তির হাসি ফুটে উঠেছে। আমতলী মডেল ফাউন্ডেশন এবারের কোরবানি ঈদে সাধ্যের মধ্যে ও কিছু পরিচিতজনের সহযোগিতায় গরু কোরবানি দিয়ে সব গোশত বিধবা ও অশীতিপর বৃদ্ধদের মধ্যে বিলিয়ে দেয়।

মহৎ এই কাজে শরিক হন দৈনিক জনকণ্ঠ ঢাকা অফিসের সাংবাদিকদের একাংশ।

ঈদের দিন বিকেলে আমতলী, বড়বাজার, বালুপাড়া, গুড়াতিয়া, পশ্চিমপাড়ার বয়স্কা বিধবা ও বয়স্ক ব্যক্তির প্রায় ৮০ জনের হাতে এক কেজি করে গোশত তুলে দেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান। সঙ্গে ছিলেন ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক ও আমতলী মডেল স্কুলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। বড়বাজার ও পশ্চিমপাড়া গ্রামের বিধবা আম্বিয়া খাতুন (৭২), আরেফা বেওয়া (৬৮) অশীতিপর হাতেম আলী (৮০) কোরবানির গোশত পেয়ে আনন্দাশ্রুতে প্রার্থনা করেন। ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বলেন ‘অনেক গ্রামে বিত্তবান আছেন। ইচ্ছা করলেই সামান্য উদ্যোগ নিয়ে নিজ এলাকার দুস্থদের মুখে হাসি ফোটাতে পারেন। আমরা পথ দেখালাম। অনেকেই আসতে পারেন।” তিনি উপলব্ধি করেন, সামাজিক কর্মকান্ডে অনেকে উৎসাহ দিয়ে এগিয়ে আসার আশ^াস দিলেও পরে তা আর থাকে না। এই কাজ কঠিন। তবে মানবিক কাজে অংশ নিয়ে এই কঠিন পথ পাড়ি দিতে পারলে মনের যে প্রশান্তি আসে তা কোরাবনি ঈদের অনেক দীক্ষার মধ্যে এটিও বড় মহত্ব ও ত্যাগের দীক্ষা।

নির্বাচিত সংবাদ