২৪ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কোরবানি দিতে গিয়ে সারাদেশে দুই শতাধিক আহত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবারও কোরবানি দিতে গিয়ে আহত হয়ে রাজধানীসহ আশপাশের জেলার দুই শতাধিক লোক এসে চিকিৎসা নিচ্ছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। প্রতিবছরই কোরবানি দেয়ার সময় নানা ধরনের দুর্ঘটনায় আহত হন অনেক লোক। অসচেতনতার কারণে এবারও এর ব্যতিক্রম নয়। কোরবানির সময় চাকু দিয়ে কারও হাত, কারও পা এমনকি কারও শরীরের বিভিন্ন অংশ কেটে যায়। অথবা কোরবানি দিতে গিয়ে গরুর শিংয়ের আঘাত পেয়ে অনেকে আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল ৮টা থেকে কোরবানি দেয়া শুরু হলে এ পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে অনেকে আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সকাল নয়টা থেকে বেলা এগারোটা পর্যন্ত প্রায় ২০০ জন লোক কোরবানি দেয়ার সময় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

কুমিলাার তিতাস উপজেলার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন (৩৫) বলেন, নিজেদের গরু কোরবানি দেয়ার সময় অনবধানবশত ছুরি হাতের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে আমার বাঁ পায়ের অনেক অংশ কেটে যায়। প্রথমে তিতাস উপজেলার একটি হাসপাতালে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে রক্ত বন্ধ না হওয়ায় ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। খিলগাঁও গোড়ান এলাকার মাদ্রাসার ছাত্র জিহাদুল ইসলাম বলেন, এলাকায় একটি গরু কোরবানি দেয়ার সময় সেটি হঠাৎ লাফ দিয়ে উঠে। এতে আমার হাতের ওপর দিয়ে চলে যায় চাকু। বৃদ্ধাঙ্গুলের অনেক অংশ কেটে যায়।

নির্বাচিত সংবাদ