১৮ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বর্জ্য অপসারণে কথা রাখলেন ঢাকার দুই মেয়র

  • রাজধানী বর্জ্যমুক্ত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কোরবানি শেষে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রাজধানীর বর্জ্য অপসারণ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের মেয়র। কথা রেখেছেন তারা। ছোটখাটো কিছু অভিযোগ বাদ দিলে রাজধানী বর্জ্যমুক্ত বলা যায়। তবে মেয়রদের ঘোষণা বাস্তবায়নে সহযোগিতা করেছে বৃষ্টি। ঈদের দিন থেকে বুধবার পর্যন্ত তিনদিনই রাজধানীতে কমবেশি বৃষ্টি হয়েছে। এতে রাস্তায় থাকা রক্ত, ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার বলা চলে। ঈদ উৎসব শেষে উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলন করে দাবি করেছেন বর্জ্যমুক্ত তার এলাকা। দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন পৃথক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, প্রায় শতভাগ অপসারণ হয়েছে কোরবানির বর্জ্য। সরেজমিন রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে রাস্তা ঘাট বেশ পরিষ্কার দেখা গেছে। তবে ডাস্টবিনসহ বিভিন্ন এলাকায় কিছু অলিগলিতে দুর্গন্ধ রয়েছে।

প্রতিবছরের মতো এবারও সিটি কর্পোরেশনের নির্ধারিত স্থানে শতভাগ পশু জবাই দেয়া হয়নি। অনেক এলাকায় ইচ্ছামত বাসার সামনে, রাস্তায়, অলি গলিতে পশু জবাই করতে দেখা গেছে ঈদের পরের দুই দিনও। অলিগলিতে পড়ে থাকা কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ করতে নাগরিকদের সহায়তা চান ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। এজন্য নাগরিকদের একটি হটলাইন নম্বরে ফোন করার পরামর্শও দিয়েছেন। আর সেই হটলাইনটি কাজ করছে কিনা তা জানতে নিজেই কল করেছেন তিনি। দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কোরবানির প্রথম দিনের বর্জ্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই প্রায় শতভাগ অপসারণ করা হয়েছে বলেও দাবি তার। ঈদের পরের দিন বিকেলে নগর ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম বিষয়ে সাংবাদিকদের অবহিত করেন সাঈদ খোকন।

উপস্থিত সাংবাদিকদের দু-একজন দাবি করেন- প্রধান সড়কগুলোর বর্জ্য অপসারণ করা হলেও পুরান ঢাকার অলিগলিতে এখনও বর্জ্য পড়ে রয়েছে। সে বিষয়ে মেয়র হটলাইনে ফোন দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন নাগরিকদের। মেয়র বলেন, দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন পুরান ঢাকা অধ্যুষিত এলাকা। এ এলাকায় যদি কোন অলিগলিতে কোথাও বর্জ্য পড়ে থাকতে দেখেন আমরা বিনীতভাবে অনুরোধ করছি, আমাদের হটলাইনে ফোন করবেন। হটলাইন কাজ করছে কিনা- এ বিষয়ে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন। পরে উপস্থিত এক কর্মকর্তা হটলাইনে কল দিয়ে ফোনটি মেয়রের হাতে দেন। এসময় লাউড স্পীকারে কণ্ঠ ভেসে আসে ‘কোরবানির বর্জ্য অপসারণ সেবা পেতে এক চাপুন...’। এরপর ফোন সরাসরি চলে যায় একজন অপারেটরের কাছে। শুরু হয় কথোপকথন।

‘আমি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কল সেন্টার থেকে তারেক বলছি, কীভাবে সাহায্য করতে পারি?’ ‘পল্লীমা সংসদ এলাকায় বর্জ্য পড়ে আছে কাইন্ডলি আপনি একটু ব্যবস্থা নিন। ‘আপনার নাম বলবেন?’ ‘আমার নাম সাঈদ খোকন।’ ‘কতক্ষণ সময় লাগবে?’ ‘জি, আমরা এখনই ব্যবস্থা নিচ্ছি।’ মেয়র সাংবাদিকদের জানান, ২৪ ঘণ্টা কল সেন্টার খোলা থাকবে। আর দ্বিতীয় দিনের বর্জ্য ওইদিন এবং তৃতীয় দিনের বর্জ্যও দিনের মধ্যে অপসারণ করা হবে।

বর্জ্যমুক্ত ডিএনসিসি ঘোষণা দিয়ে উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, মশানাশক ওষুধ ছিটানোর জন্য নতুন ফগার লার্ভিসাইড মেশিন আনছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। এরমধ্যে ৫শটি ফগিং মেশিন এবং ১শ ৪০টি লার্ভিসাইড মেশিন। মঙ্গলবার গুলশান নগর ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন তিনি।

আতিক বলেন, মশার ওষুধ ছিটানোর জন্য নতুন মেশিন আনছি আমরা। মশার লার্ভা ধ্বংসের জন্য আমরা আনছি আরও ১৫০টি লার্ভিসাইড মেশিন। তিনি বলেন, মশার ওষুধ ছিটানো প্রক্রিয়াকে আমরা আরও উন্নত করছি। ঈদ-উল-আজহার কোরবানির বর্জ্য শতভাগ অপসারণ করে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকাকে বর্জ্যমুক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। ঈদ-উল-আজহার প্রথম দিন থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ১৩ হাজার ২৩৪ টন বর্জ্য সিটি কর্পোরেশন অপসারণ করে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান মেয়র। ৪৩৮টি যানবাহন দুই হাজার ৪৪৯টি ট্রিপে এ পরিমাণ বর্জ্য অপসারণ করে। সংবাদ সম্মেলনে আতিকুল ইসলাম বলেন, এবার আড়াই লাখেরও বেশি পশু কোরবানি হয়।