১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ধামইরহাটে হুইল চেয়ার পেয়ে প্রতিবন্ধী মোসাব্বিরের মুখে হাসি

ধামইরহাটে হুইল চেয়ার পেয়ে প্রতিবন্ধী মোসাব্বিরের মুখে হাসি

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁর ধামইরহাটে হুইল চেয়ার পেয়ে প্রতিবন্ধী শিশু মোসাব্বির হোসেনের (৬) মুখে হাসির ঝিলিক। অসহায় পিতামাতার আর্থিক সংকটের কারণে এতোদিন প্রাণের ধন ছেলের হুইল চেয়ারের আবদার রক্ষা করতে পারেনি। অবশেষে হৃদয়বানদের সহযোগিতায় হুইল চেয়ার পেলে অসহায় শিশু মোসাব্বির ও তার পিতামাতার মুখে স্বস্তির হাসি দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, ধামইরহাট পৌরসভার অন্তর্গত আমাইতাড়া গ্রামের রাজমিস্ত্রী মোঃ রবিউল ইসলামের দুই ছেলের মধ্যে মোঃ মোসাব্বির হোসেন (৬) বড়। ছোট ছেলের নাম মুসা বাবু (৪)। মোসাব্বির জন্মের পর সুস্থ থাকলেও পরবর্তীতে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে তার দুই পা অকেজো হয়ে পড়ে। সে হেঁটে চলাফেরা করতে পারেনা। বাবা মায়ের কোলে চড়ে কিছুক্ষণ থাকলেও বাকী সময় তাকে শুয়ে থাকতে হয়। অভাব অনটনের সংসারে তাকে একটি হুইল চেয়ার কিনে দেয়ার মতো সামর্থ্য নেই।

এব্যাপারে মোসাব্বিরের মা মনিকা বেগম বলেন, বসতবাড়ি ছাড়া তাদের কোন সম্পাদ নেই। তার স্বামী রাজমিস্ত্রীর কাজ করে কোন রকমে সংসার চালায়। র্দীদিন ধরে একটি হুইল চেয়ারের অভাবে সারাদিন তার ছেলে কে শুয়ে থাকতে হতো। এখন চেয়ার পেয়ে পুরো পরিবারের মুখে স্বস্তির হাসি ফুটে ওঠেছে। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) যুগ্ম সম্পাদক, মজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও গ্রীণ ভয়েস বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা মোঃ আলমগীর কবির, স্থানীয় সাংবাদিক হারুন আল রশীদ, ধামইরহাট সরকারি এম এম কলেজের প্রভাষক আবু তাইফ, প্রদর্শক মোঃ ফিরোজ হোসেনসহ যারা এই হুইল চেয়ার প্রদানে সহযোগিতা করেছেন, ওই অসহায় পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মনিকা বেগম।