২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নওগাঁয় ডেঙ্গু সনাক্তকরণ পরীক্ষার বিতর্কিত ফলাফল

নওগাঁয় ডেঙ্গু সনাক্তকরণ পরীক্ষার বিতর্কিত ফলাফল

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁয় ল্যাব এইড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে ডেঙ্গু সনাক্তকরণ পরীক্ষায় বিতর্কিত ফলাফল সাধারন মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে। এই ল্যাবে একজন রোগির ডেঙ্গু আছে কিনা এই পরীক্ষায় পজিটিভ ফলাফল দেখালেও অন্য দু’টি পৃথক ল্যাবে নেগেটিভ ফলাফল পরিলক্ষিত হয়েছে। এ নিয়ে নওগাঁয় সাধারন মানুষ সংশ্লিষ্ট ল্যাবের পরীক্ষা নিরীক্ষা নিয়ে আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, নওগাঁ মাল্টিাপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মাসুদ রানার দ্বিতীয় পুত্র হাসিনুর হাসান জীমের শরীরে জ্বর অনুভুত হলে গত ১৫ আগষ্ট নওগাঁ ল্যাব এইড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে রক্ত পরীক্ষা করলে ডাঃ সমশের আলী স্বাক্ষরিত রিপোর্টে ডেঙ্গু এনএস-১ পজিটিভ দেখানো হয়। এই রিপোর্ট নিশ্চিত হওয়ার জন্য শহরের কমপ্যাথ ল্যাবরেটরীতে একই পরীক্ষায় নেগেটিভ রিপোর্ট প্রদর্শিত হয়।

দু’টি ল্যাবে পৃথক রিপোর্ট পরিলক্ষিত হলে বিতর্ক দরীভুত করতে ওইদিনই বগুড়া ইবনে সিনা কনসালটেশন সেন্টারে ডাঃ ডি এম আরিফুর রহমান কর্ত্তৃক প্রদত্ত ডেঙ্গু এনএস-১ রিপোর্টে নেগেটিভ ফলাফল প্রদর্শিত হয়েছে। যা সম্পূর্ন বিপরীত রিপোর্ট। এতে করে স্ধাারন মানুষের মধ্যে ল্যাব এইডের মেডিক্যাল রিপোর্ট নিয়ে সন্দেহের উদ্রেক হয়েছে। ডেঙ্গুর মত ভয়াবহ এবং আতঙ্কিত একটি রোগের রিপোর্ট নিয়ে ছেলেখেলা মানুষের জীবন দুর্বিসহ করে তুলতে পারে। কাজেই ল্যাব এইডের মত একটি প্রতিষ্ঠান দায়িত্বহীনতার পরিচয় দেবে এটা কারও কাম্য হতে পারে না।

এদিকে এ ব্যাপারে নওগাঁ ল্যাব এইড কর্ত্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বললে তাঁরা জানান, আমাদের ল্যাবে অত্যাধুনিক মেশিন দ্বারা সব কিছুই পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়। ল্যাব যথাযথ স্বাস্থ্য এবং পরিবেশ সম্মতভাবে সংরক্ষিত ও পরিচালিত হয়। আমাদের পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রক্রিয়াগত কোন ত্রুটি নাই। ডেঙ্গু পরীক্ষার জন্য ব্যবহৃত ডিভাইস ত্রুটিযুক্ত হতে পারে। কারন বিদেশ থেকে ডিভাইস আমদানী করার ক্ষেত্রে সরকারের কোন বিধিনিষেধ আরোপিত হয়নি। এখন কোন সোর্স থেকে কিভাবে ডিভাইসগুল্ আসছে তা ক্ষতিয়ে দেখা দরকার। স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে নিয়োজিত কোন বৈধ সোর্সের মাধ্যমে এসব ডিভাইস আমদানী করা উচিত বলে সচেতন মহল মনে করেন।