১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কর্ণফুলীতে পেয়ারা বিক্রেতাকে মারধর, মৃত্যুর গুজবে তান্ডব

  • ফাঁকা গুলি ও লাঠিচার্জ

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া, ১৯ আগস্ট ॥ এক ডজন পেয়ারা ৩০ টাকায় না দেয়ায় চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সদস্য এএসআই জাহিদ পেয়ারা বিক্রেতাকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় কর্ণফুলী উপজেলার মইজ্জ্যারটেক এলাকায় পেয়ারা বিক্রেতারা মারধর করার জের হিসেবে উত্তেজিত জনতা পুলিশের ওপর হামলা ও পুলিশ বক্স ভাংচুর চালিয়েছে। এ সময় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কে নগরীর প্রবেশপথ অবরোধ ও বন্ধ হয়ে গেলে সব ধরনের গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও লাঠিচার্জ চালায়। রাতে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করার খবর পাওয়া গেছে। উত্তেজিত জনতার ছোড়া পাথরে পুলিশের কয়েকজন আহতও হয়েছে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, কর্ণফুলী উপজেলার মইজ্জ্যারটেক এলাকায় চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের মুহাম্মদ ছৈয়দের পুত্র মোহাম্মদ আলী (২৪) সোমবার পেয়ারা বিক্রি করছিলেন। নগর গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য এএসআই জাহিদ পেয়ারা কিনতে যায়। এ সময় এক ডজন পেয়ারা ৩০ টাকায় না দেয়ায় তাকে বেধমভাবে মারধর করা হয়। এক পর্যায়ে পেয়ারা বিক্রেতা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ সময় ওই পেয়ারা বিক্রেতার মারা যাওয়ার গুজব ছড়িয়ে পড়লে এলাকার উত্তেজিত শ্রমিক জনতা মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেন এবং কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কর্ণফুলী থানা পুলিশ ছাড়াও ঘটনাস্থলে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পুলিশ ফাঁকা গুলি ও লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় হামলা, ফাঁকা গুলি ও লাঠিচার্জ শেষে পুলিশ রাত সাড়ে ৯টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (কর্ণফুলী জোন) জাহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, পেয়ারা বিক্রেতার সঙ্গে ডিবি পুলিশের এক সদস্যের কথা কাটাকাটি হয়েছে। এ সময় পেয়ারা বিক্রেতা অসুস্থ হয়ে পড়লে এলাকার লোকজন মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের কর্ণফুলী উপজেলার মইজ্জ্যারটেক এলাকায় উত্তেজিত জনতা রাস্তা ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেন। ঘটনার সময় উত্তেজিত জনতা পাথর ছুড়ে মারলে পুলিশের কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানান।

এই মাত্রা পাওয়া