২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মানসিক অসুস্থ যুবতী মেয়েকে ফেলে পালিয়েছে মা

মানসিক অসুস্থ যুবতী মেয়েকে ফেলে পালিয়েছে মা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা ॥ মানসিক হাসপাতালে অসুস্থ যুবতি মেয়েকে ভর্তি করতে না পেরে সৎসঙ্গ আশ্রমে শিকলে বেঁধে পালিয়েছে মা । দু’মাস ধরে আশ্রম কর্তৃপক্ষ তাকে দেখভাল করছে। যুবতি তার নাম বলছে রুপনা কখনো লুবনা। তবে লুবনা বলেই সে ফিক ফিক করে হেসে ওঠছে । হিমাইতপুর সৎসঙ্গ আশ্রমের বারান্দায় তার ঠাই হয়েছে। সে কখনও গান গাইছে, নাচ করছে আবার মাঝে মাঝে আকাশের দিকে নিরব দৃষ্টিতে তাকিয়ে দেখছে। লুবনাকে ২ মাস আগে মানসিক হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে নিয়ে আসে তার মাসহ স্বজনরা। কিন্তু ভর্তি করতে না পারায় মানসিক হাসপাতালের কাছেই অবস্থিত ঠাকুর অনুকুল চন্দ্র সৎসঙ্গ আশ্রমের বারান্দায় মায়ের সাথে রাতে আশ্রয় নেয় লুবনা। কিন্ত ভোরের আলো না ফুটতেই কাউকে না জানিয়ে মেয়েটাকে শিকলে বেঁধে চলে যায় মা। সেই থেকে মেয়েটার ঠাঁই হয়েছে আশ্রমের এই বারান্দায়। শেকল পায়ে বসে থাকে লুবনা। কখনো শেকল খুলে দিলেও কোথায়ও যায়না। গত দুই মাসে অনেকবার লুবনার সাথে কথা হয়েছে আশ্রমের কতৃপক্ষ তারা অনেকটা ধারণা করতে পারছেন লুবনার বাড়ি চট্রগ্রাম । মেয়েটা তার বাবার নাম বলছে জহির। মামার বাড়ি চট্টগ্রামের চন্দনাইশ হাজীপাড়া। মামার মামাবাড়ী থেকে হাজীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছে। সম্ভবত বাবা মায়ের মধ্যে সম্পর্ক নেই। আশ্রম কর্তৃপক্ষ মানসিক অসুস্থ মেয়েটির চিকিৎসাসহ স্বজনদের কাছে ফিরিয়ে দিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।