১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আন্তঃক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আন্তঃক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় স্কুল শাখায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এবং কলেজ শাখায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ। বুধবার তিন দিনব্যাপী আয়োজিত এই বিতর্ক প্রতিযোগিতার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের গবর্নিং বডির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান।

সংসদীয় পদ্ধতিতে আয়োজিত গ্র্যান্ড ফাইনাল বিতর্ক প্রতিযোগিতা দুটি স্পীকার হিসেবে পরিচালনা করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্কুলের অধ্যক্ষ লে. কর্নেল মোঃ মাসুদ রানা। প্রতিযোগিতায় স্কুল ও কলেজ শাখায় যথাক্রমে রানার আপ হয় মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এবং শহীদ বীর উত্তম লে. আনোয়ার গার্লস কলেজ। স্কুল শাখায় শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হয় ইফতিসাম তাসকিন মুগ্ধ এবং কলেজ শাখায় শ্রেষ্ঠ বক্তা হয় আরাফাত ইসলাম রিফাত। আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিকের স্কুল অডিটরিয়াম অনুষ্ঠিত জমজমাট এই গ্র্যান্ড ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ বিভিন্ন গনমাধ্যমের সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, যুক্তিতর্কের খেলায় যুক্তির আয়নায় নিজের ভাবনাগুলোকে প্রতিফলিত করা যায় এই পদ্ধতিতে। বিতর্ক একজন মানুষকে বিস্তর জটিল বিষয়াদি নিয়ে কথা বলতে শেখায়। শেখায় কিভাবে উপস্থিত সবাইকে নিজের দৃষ্টিভঙ্গি বুঝিয়ে দিতে হয়। অন্যের দৃষ্টিভঙ্গি জানার পাশাপাশি একজন ভাল বিতার্কিকের যে দক্ষতাটি অর্জিত হয় তা হলো নিজের মতামতকে প্রয়োজনে পাল্টে নেয়া। ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, রাজনৈতিক সদিচ্ছা ছাড়া দুর্নীতি প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। তবে এক্ষেত্রে, সামাজিক আন্দোলনও গড়ে তুলতে হবে। সুশাসন, জবাবদিহিতা, আইনের শাসন, অধিক কর্মসংস্থান তৈরি করাসহ বিচারহীনতার সংস্কৃতি পরিহার করতে হবে।