১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উড়ন্ত সূচনা বাংলাদেশের

উড়ন্ত সূচনা বাংলাদেশের
  • বাংলাদেশ ৫-২ ভুটান

রুমেল খান ॥ আগের দুই মোকাবেলায় প্রতিটিতেই জিতেছিল লাল-সবুজবাহিনী। তৃতীয় মোকাবেলাতেও জয় তাদেরই হবে এমনটাই অনুমেয় ছিল। শেষ পর্যন্ত তাই হয়েছে, প্রত্যাশিত জয়ই কুড়িয়ে নিয়েছে বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা। ভারতের কল্যাণীতে অনুষ্ঠিত সাফ অনুর্ধ-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে শুক্রবার তারা প্রতিপক্ষ ভুটানকে হারিয়ে দিয়েছে ৫-২ গোলে। প্রথমার্ধে বিজয়ী দল এগিয়েছিল ৩-২ গোলে। জিতলেও একটা সময় বাংলাদেশকে চিন্তাতেই ফেলে দিয়েছিল ভুটান দল। কেননা একপর্যায়ে তারা স্কোরলাইন ২-২ করে ফেলেছিল। তবে সেই ধাক্কা-চাপ সামলে বাংলাদেশ দল আবারও গোল করে এগিয়ে যায়।

জিততে বাংলাদেশকে বেশ ঘাম ঝরাতে হয়েছে। সেটা খেলার পরিশ্রমের কারণে নয় আবহাওয়ার কারণে। আবহাওয়া ছিল প্রচন্ড গরম। তাপমাত্রা ছিল ৩২ ডিগ্রী সেলসিয়াস। খেলা হয়েছে কল্যাণীর স্থানীয় সময় বেলা ১২টায়। ফলে দু’দলকেই স্বাভাবিক খেলা খেলতে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। এই আসরে এর আগে ২০১৭ সালে গ্রুপপর্বে ভুটানকে ৩-০ গোলে এবং একই আসরে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে ৮-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ভুটানের বিরুদ্ধে এ নিয়ে টানা তৃতীয় জয় পেল বাংলাদেশ। আগামী রবিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামবে বাংলাদেশের কিশোররা। পরে ২৭ আগস্ট নেপাল এবং ২৯ আগস্ট স্বাগতিক ভারতের মুখোমুখি হবে তারা।

এবারের আসরেও শুরুটা তেমন ভাল হয়নি ভুটানের। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ৩-২ গোলে হেরে যায় তারা। দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের সঙ্গে হেরে তাদের বিদায় অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গেল। এবার টুর্নামেন্ট হচ্ছে রবিন লীগ পদ্ধতিতে। তাই প্রতিটি দলের জন্যই অন্য দলের ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ। গ্রুপের সেরা দুই দল খেলবে ফাইনাল। দলের ইংলিশ কোচ রবার্ট মার্টিন রাইলস শেষ মুহূর্তে অসুস্থ হয়ে পড়ায় বাংলাদেশ দলের সঙ্গে ভারতে যেতে পড়েননি। সে জন্য তড়িঘড়ি করে হেড কোচ হিসেবে পাঠানো হয় মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ বাবুকে। ভুটানকে হারানোর পর বাবু বলেন, ‘যে কোন দলের কাছে জয়টাই মুখ্য। আর সেই ব্যবধান যদি হয় ৫-২ হয় সেটা খুব ভাল। বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ছিল এটা। ছেলেরা চেষ্টা করেছে সাধ্যমতো সর্বোচ্চ দিয়ে খেলার। এখানে প্রচন্ড গরম। এই বাচ্চাদের খেলায় এত গরমের মধ্যে কেন হবে। ওদের খেলতে খুব কষ্ট হয়ে গেছে। তথাপি রেজাল্ট ৫-০ হলে আরও ভাল হতো। গোলরক্ষক একটা ভুল এবং ডিফেন্সের ভুলের কারণে দুটি গোল খেয়ে গেছি। আমরা সামনে এটা নিয়ে আরও কাজ করব। আমাদের জয়ের ধারা অব্যাহত রাখব।’ বাবু আরও যোগ করেন, ‘গতবার গোলকিপারের জন্যই আমাদের শিরোপাটা ঘরে এসেছিল। কিন্তু এবার গোলকিপার দুর্বল কিনা সেটা প্রথম ম্যাচ দেখে বলা যাবে না। যেহেতু টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ। ওয়েদার এবং ম্যাচ কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে একটু সমস্যা হয়েছে ছেলেদের। দেখা যাক সামনের ম্যাচগুলো আসুক। কেমন খেলে দেখি। প্রথম ম্যাচ হিসেবে যা খেলেছে আমি সন্তুষ্ট। এত গরমে খেলা স্বাভাবিক পারফর্মেন্স করা খুবই কঠিন। এরপর এরা ইয়াং ছেলে। ওরা চেষ্টা করেছে মানিয়ে নিতে। কিন্তু কিছু খেলোয়াড় পানিশূন্যতায় ভুগেছে। আশাকরি পরবর্তীতে এগুলো কাটিয়ে উঠবে।’ ১৫ মিনিটে আল-আমিন রহমানের গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। কিন্তু দুই মিনিট পরই সোনম চোজাং গোল করলে ভুটান ম্যাচে ফেরে। ২১ মিনিটে আল মিরাত গোল করলে আবার এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। ৩২ মিনিটে ভুটান ফের সমতা আনে পাপ দর্জির গোলে। ৪৫ মিনিটে শুভ সরকারের গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় চ্যাম্পিয়নরা।

দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশ আদায় করে নেয় আরও দুটি গোল। ৮৩ মিনিটে আল মিরাত ও ইনজুরি সময়ে ইমন ইসলাম রাজু গোল করলে বাংলাদেশ ম্যাচ জেতে ৫-২ গোলে।

এই মাত্রা পাওয়া