১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রোটিয়াদের সহকারী ব্যাটিং কোচ ক্লুজনার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অলরাউন্ডার ল্যান্স ক্লুজনারকে এবার দলের কোচিং স্টাফে অন্তর্ভুক্ত করেছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা (সিএসএ)। আগামী মাসে ভারত সফরে যাবে প্রোটিয়া দল। মূলত ওই সফরে টি২০ সিরিজে দলের ব্যাটসম্যানদের সহায়তা দিতে ক্লুজনারকে সহকারী ব্যাটিং কোচ করা হয়েছে। এছাড়া দলের সাবেক সহকারী কোচ ভিনসেন্ট বার্নেসকে সহকারী বোলিং কোচ এবং সাবেক প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান জাস্টিন অনটংকে সহকারী ফিল্ডিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

ওয়ানডে বিশ্বকাপে এবার সুবিধা করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল। সে কারণে প্রধান কোচ ওটিস গিবসনকে বিদায় করে দিয়েছে সিএসএ। এর বদলে নতুনভাবে পরিকল্পনা করছে তারা। সেই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সব সহকারী কোচ এবং টেকনিক্যাল স্টাফরা নব নিয়োজিত অন্তর্বর্তীকালীন টিম ডিরেক্টর এনোখ নকুয়ের কাছে রিপোর্ট করবেন। এরপর তিনিই সবাইকে পরবর্তী দায়িত্ব বুঝিয়ে দেবেন। আসন্ন ভারত সফরে দক্ষিণ আফ্রিকা ৩ টি২০ ও ৩ টেস্ট খেলবে। আর সে জন্যই ক্লুজনারকে সহকারী ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিল সিএসএ। দীর্ঘদিন তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার দল ডলফিনসের প্রধান কোচ (২০১২ থেকে ২০১৬), ২০১৬ সালে জিম্বাবুইয়ের ব্যাটিং কোচ, ভারতের লাইকা কোভাই কিংসের কোচ হিসেবে কাজ করেছেন। এ বছর ইউরো টি২০ স্লাম প্রথমবারের মতো হওয়ার কথা ছিল। সেখানে তাকে গ্লাসগো জায়ান্টসের প্রধান কোচ করা হয়েছিল। তবে এ বছর টুয়েন্টি স্লাম আসরটি হচ্ছে না। এর মধ্যেই এখন প্রোটিয়া দলের দায়িত্ব পেলেন বর্তমানে ৪৭ বছর বয়সী ক্লুজনার।

খেলোয়াড়ী জীবনে মারকুটে ব্যাটসম্যান হিসেবে সারাবিশ্বের বেশ জনপ্রিয় ক্রিকেটার ছিলেন ক্লুজনার। তিনি প্রোটিয়া জার্সিতে ৪৯ টেস্ট ও ১৭১টি ওয়ানডে খেলেছেন ১৯৯৬ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত। সে সময়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার ছিলেন তিনি। তবে মিডিয়াম পেস বোলিংয়ের চেয়ে শেষদিকে ব্যাটিং তান্ডব চালানোর জন্য বেশি পরিচিতি পেয়েছিলেন। টেস্টে ১৯০৬ রান ও ৮০ উইকেট এবং ওয়ানডেতে ৩৫৭৬ রান ও ১৯২ উইকেট শিকার করেছিলেন তিনি। তবে ২০০৬ সালে টি২০ ক্রিকেটের প্রবর্তন হওয়ায় এই মারকুটে স্বভাবের ব্যাটসম্যান এ ফরমেটটাই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খেলতে পারেননি। তবে ঘরোয়া টি২০ আসরে ২০১০ পর্যন্ত তিনি ৫৩ ম্যাচ খেলেন। ৩৪.৯৬ গড় ও ১৩৬.১ স্ট্রাইকরেটে ১০১৪ রান করেছেন ১ সেঞ্চুরি ও ৪ হাফ সেঞ্চুরিতে।

এই মাত্রা পাওয়া