১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলম্বোয় বৃষ্টি ও কিউই পেসারদের দাপট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কলম্বো টেস্টে চলছে বৃষ্টি ও নিউজিল্যান্ড পেসারদের দাপট। দু’দিনে খেলা হয়েছে মাত্র ৬৬ ওভার। টস জিতে ব্যাটিং নেয়া শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসে সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৪৪। মেঘলা পরিবেশে সফরকারউ পেসারদের বিপক্ষে লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা ছিল ভীষণ অসহায়। অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে ৬৫, টপঅর্ডারে কুসল মেন্ডিস ৩২ ও শেষদিকে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার ৩২* ছাড়া কেউ সুবিধা করতে পারেননি। কিউইদের হয়ে দুই তারকা পেসার ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদি নিয়েছেন দুটি করে উইকেট, একটি করে শিকার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ও উইলিয়াম সমারভিলের। এদিন তৃতীয় নিউজিল্যান্ড বোলার হিসেবে টেস্টে আড়াই শ’ উইকেট শিকার করেন বোল্ট। উল্লেখ্য, গলের প্রথম ম্যাচে ৬ উইকেটের বড় জয়ে দুই টেস্টের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে শ্রীলঙ্কা। বৃষ্টির কারণে এই টেস্ট ড্র হলেও তাই সিরিজ পকেটে পুরবে করুনারত্নের দল।

শুক্রবার দ্বিতীয়দিনের প্রথম সেশনেই ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদির জোড়া আঘাতে শ্রীলঙ্কাকে কম রানে গুটিয়ে দেয়ার আশা জাগিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। তাতে জল ঢেলে দিয়েছে বৃষ্টি। ভেসে গেছে পরের দুই সেশনের খেলা। দ্বিতীয়দিন শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৪৪ রান। ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ৩২ ও দিলরুয়ান পেরেরা ৫ রানে ব্যাট করছেন। প্রথমদিন খেলা হয়েছিল ৩৬.৩ ওভার, দ্বিতীয়দিনে ২৯.৩ ওভার। পি সারা ওভালে শুক্রবার ২ উইকেটে ৮৫ রান নিয়ে দিন শুরু করা শ্রীলঙ্কা শুরুতেই হারায় অভিজ্ঞ এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ও কুসল পেরেরাকে। ম্যাথুসকে কট বিহাইন্ড করে নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় বোলার হিসেবে টেস্টে আড়াই শ’ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেন বোল্ট। সেই ওভারেই কুসল পেরেরাকে এলবিডব্লিউ করে বিদায় করেন বাঁহাতি এই পেসার। ডি সিলভার সঙ্গে অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নের জুটিতে প্রতিরোধ গড়ে শ্রীলঙ্কা। জুটিটি অবশ্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি সাউদি। কট বিহাইন্ড করে ফেরান ৬ চারে ৬৫ রান করা করুনারত্নেকে। সেই ওভারেই শূন্য রানে নিরোশান দিকয়েলাকে বিদায় করেন সাউদি।

প্রথম সেশনের বাকি সময়টা দলে ফেরা দিলরুয়ানকে নিয়ে কাটিয়ে দেন ডি সিলভা। মোটামুটি একটা স্কোর পেতে এই অলরাউন্ডারের দিকেই তাকিয়ে আছে শ্রীলঙ্কা। বোল্ট ৩৩ রানে নেন ২ উইকেট। সাউদি ২ উইকেট নেন ৪০ রানে। গলে প্রথম টেস্টে ৬ উইকেটে জয়ের পথে নিউজিল্যান্ডকে যথাক্রমে ২৪৯ ও ২৮৫ রানে অলআউট করা শ্রীলঙ্কা নিজেদের প্রথম ইনিংসে গুটিয়ে গিয়েছিল ২৬৭ রানে। নিজেদের দ্বিতীয় এবং ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে আড়াই শ’র ওপরে রান চেজ করে জেতাটা তাই সহজ ছিল না। কিন্তু অধিনায়ক করুনারত্নের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির (১২২) সৌজন্যে ৪ উইকেট হারিয়ে প্রয়োজনীয় ২৬৮ রান তুলে নেয় স্বাগতিকরা। ওপেনিং তার সঙ্গী আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান লহিরু থিরিমান্নে খেলেন ৬৪ রানের কার্যকর ইনিংস। ঘূর্ণি পিচে বল হাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন স্পিনার ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও তরুণ লাসিথ এমবুলদেনিয়া। দারুণ ছন্দে থাকা করুনারত্নের চোখে এখন সিরিজ জয়ের স্বপ্ন।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া