১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আবারও লঙ্কা বধের পালা লাল-সবুজ কিশোর ফুটবলারদের

আবারও লঙ্কা বধের পালা লাল-সবুজ কিশোর ফুটবলারদের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথম ম্যাচটা ভালমতো খেলেই জয় কুড়িয়ে নেয়া গেছে। এবার পালা দ্বিতীয় ম্যাচেও জিতে জয়ের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা। সে লক্ষ্যেই কাল রবিবার সাফ অনুর্ধ-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে মাঠে নামবে বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা। ভারতের কল্যাণী স্টেডিয়ামে বেলা সাড়ে ১২টায় তাদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ৫-২ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করেছিল লাল-সবুজ বাহিনী। পক্ষান্তরে শ্রীলঙ্কাও তাদের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে হারিয়েছিল ৩-২ গোলে। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে তারা নেপালের কাছে হেরে গেছে ০-২ গোলে।

আগেরদিন ম্যাচ জিতে শনিবার রিকভারি সেশন করে বাংলাদেশ দল। কোচ মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ বাবু জানান, ‘দলে কোন ইনজুরি সমস্যা নেই। বরাবরের মতোই আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দেবে দল। ভারতে গরমটা একটু বেশি হওয়াতে সেখানে খেলতে একটু কষ্ট হচ্ছে। তবে সেটি উভয় দলের খেলোয়াড়ের জন্যই প্রযোজ্য। তাই গরম থাকুক আর বৃষ্টিই হোক যে কোন পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েই ম্যাচটা জিতে মাঠ ছাড়ার প্রত্যাশা আমাদের।’

এখন পর্যন্ত ফাইনালে খেলার রেসে এগিয়ে আছে স্বাগতিক ভারত ও বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। ২৭ আগস্ট নেপাল এবং ২৯ আগস্ট ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

২০১১ সালে সাফ অ-১৬ টুর্নামেন্টে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে একই গ্রুপে ছিল বাংলাদেশ। ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই শ্রীলঙ্কাকে ৬-২ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল বাংলাদেশ। এরপর ২০১৩ সালে একই টুর্নামেন্টে আবারও গ্রুপ পর্বে দেখা হয় দুই দলের। আর ওই ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ৩-১ গোলে হারায় বাংলাদেশ। ২০১৫ সালের অ-১৬ সাফে নিজেদের দেশে শিরোপা জিতেছিলো বাংলাদেশ। সেবার গ্রুপ ‘এ’তে আবারও শ্রীলঙ্কাকে পেয়েছিল তারা। ওই ম্যাচে লংকানদের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয় এসেছিল ৪-০ গোলে। ২০১৭ থেকে টুর্নামেন্টটি হয় অ-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ নামে। একই গ্রুপে আবারও শ্রীলঙ্কাকে ৪-০ গোলে হারায় লাল-সবুজরা। সর্বশেষ ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত সাফেও চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। ওই আসরে অবশ্য শ্রীলঙ্কা অংশ নেয়নি। দুই বছর পর আবারো শ্রীলঙ্কাকে পেয়েছে টিম বাংলাদেশ। এবার ৫ দল হওয়াতে কোন গ্রুপ নেই। টুর্নামেন্ট হচ্ছে রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে। অর্থাৎ গ্রুপের সেরা দুই দল ফাইনালে খেলবে শিরোপার জন্য।

পরিসংখ্যানে এগিয়ে থাকায় আজ লঙ্কা বধে আবারও সফল হয় কি না বাংলাদেশ, সেটাই এখন দেখার বিষয়।

বাংলাদেশ অ-১৫ দল ॥ রাকিবুল, মিরাদ, আল-আমিন, নাঈম, পিয়াস, শাহীন, মেহেদী, অপূর্ব, শুভ, মুন্না, ইমন, রাজু, রানা, রাব্বি, সাজেদ, অনন্ত, হৃদয়, জয়ন্ত, সাব্বির, গোলাম রাব্বি, বাদশা, রাজীব, জনি।