১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সরকার নয়, রাষ্ট্রের কাছে প্লটের আবেদন করেছি : রুমিন ফারহানা

সরকার নয়, রাষ্ট্রের কাছে প্লটের আবেদন করেছি  :  রুমিন ফারহানা

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ঢাকার পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠার প্লট চেয়ে আবেদন করেছেন। গত ৩ আগস্ট গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম বরাবর তিনি এ আবেদন করেন। সরকারের কঠোর সমালোচক রুমিন ফারহানার এ আবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর সর্বত্র ব্যাপক আলোচনা–সমালোচনা শুরু হয়। তবে ব্যারিস্টার রুমিন বলেছেন, আমি সরকারের কাছে নয়, আবেদন করেছি রাষ্ট্রের কাছে। আর মন্ত্রী বলেছেন, বিধি অনুযায়ী এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জাতীয় সংসদের প্যাডে গত ৩ আগস্ট প্লটের বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করেন ব্যারিস্টার রুমিন। আবেদনে তিনি উল্লেখ করেন,

“ বরাবর,

জনাব, শ. ম রেজউল করিম

মাননীয় মন্ত্রী

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়

বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা

বাংলাদেশ

বিষয় : ১০ (দশ) কাঠার প্লট বরাদ্দের জন্য আবেদন।

মহোদয়,

‘আপনার অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জানানো যাচ্ছে যে, ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠার প্লটের প্রয়োজন।

ঢাকা শহরে আমার কোনো জায়গা/ফ্ল্যাট, জমি নাই। ওকালতি ছাড়া আমার অন্য কোনো ব্যবসা/পেশা নাই। আমার নামে ১০ কাঠা প্লট বরাদ্দের জন্য সুব্যবস্থা করে দিতে আপনার মর্জি হয়।’

এমতাস্থায়, আপনার নিকট আমার আবেদন। আমার নামে দশ কাঠা প্লট বরাদ্দ করলে আমি আপনার নিকট চির কৃতজ্ঞ থাকব।

আপনার বিশ্বস্ত,

রুমিন ফারহানা

সংসদ সদস্য

একাদশ জাতীয় সংসদ ৩৫০-মহিলা আসন-৫০

তারিখ ৩-৮-২০১৯”

এ বিষয়ে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা আজ রবিবার বিকেলে বলেন, ‘প্রত্যেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য রাষ্ট্রীয় এ সুবিধা পেয়ে থাকেন। আমি একজন সংসদ সদস্য হিসেবে পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠার প্লট চেয়ে আবেদন করেছি। আমি সরকারের কাছে আবেদন করিনি, আবেদন করেছি রাষ্ট্রের কাছে। প্রত্যেক এমপি, মন্ত্রী এ আবেদন করেছেন, কিন্তু কারো আবেদন প্রকাশ করা হয়নি। আমি অবৈধ সরকারকে অবৈধ বলে থাকি শুধু এ কারণেই কী আমার চিঠি প্রকাশ করা হলো?’

ব্যারিস্টার রুমিন আরো বলেন, ‘সংসদ সদস্য ও মন্ত্রী না হওয়া সত্ত্বেও একজন রাজনীতিবিদ ট্যাক্স ফ্রি গাড়ি এনেছেন। সে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই আমার এ বিষয়টি সামনে আনা হয়েছে।’

‘এক মাস ধরে আমার ফেসবুক আইডি হ্যাক করে রাখা হয়েছে। আমি থানায় জিডি করতে গিয়েছিলাম। কিন্তু থানা আমার জিডি নেয়নি’- উল্লেখ করেন রুমিন।

ব্যারিস্টার রুমিনের প্লটের আবেদন প্রসঙ্গে মন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম আজ বলেন, ‘আমি হজের জন্য দেশের বাইরে ছিলাম। চিঠির বিষয়ে আমি শুনেছি। মন্ত্রণালয়ে আমি এখনো যাইনি। মন্ত্রণালয়ে যাওয়ার পর এ বিষয়ে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব।’

হলফনামায় ফ্ল্যাট রয়েছে রুমিনের

গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রীর কাছে গত ৩ আগস্টের আবেদনে ঢাকা শহরে তাঁর কোনো জায়গা, ফ্ল্যাট ও জমি নেই উল্লেখ করেন ব্যারিস্টার রুমিন। কিন্তু জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে যে হলফনামা দাখিল করেন, তাতে তিনি উল্লেখ করেন, ১৮৫০ বর্গ ফুটের একটি ফ্ল্যাট তিনি মায়ের কাছ থেকে পেয়েছেন। রাজধানীর নিউ এলিফ্যান্ট রোডের ওই ফ্ল্যাটটি তিনি বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ব্যবহার করেন হলফনামায়।

এ ফ্ল্যাট প্রসঙ্গে রুমিন ফারহানা বলেন, ‘এ ফ্ল্যাট আমার নানি আমার মাকে দিয়েছিলেন। পরে মা সেটি আমার নামে লিখে দেন।’

একাদশ সংসদে আনুপাতিক হারে বিএনপি একটি সংরক্ষিত আসন পায়। সেই আসনে ব্যারিস্টার রুমিনকে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। তিনি বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক। গত ৯ জুন একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য হিসেবে শপথ নেন রুমিন ফারহানা।

শপথ শেষে রুমিন বলেছিলেন, ‘এই সংসদ জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। গঠিত হওয়ার পর আমি দ্ব্যর্থহীন ভাষায় এই সংসদকে অবৈধ বলেছি। আমি এখনো তা বলছি। শুধু নির্যাতিত নেতাকর্মীদের পক্ষে কথা বলতেই সংসদে যোগ দিয়েছে বিএনপি।’

টেলিভিশন টকশোর পরিচিত মুখ ব্যারিস্টার রুমিন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির কাছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসন থেকে মনোনয়ন চান। তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উকিল আবদুস সাত্তারকে মনোনয়ন দেয় বিএনপি।