২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টঙ্গীতে আ.লীগের নারী কর্মী সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত

টঙ্গীতে আ.লীগের নারী কর্মী সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ গাজীপুরের টঙ্গীতে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানের প্রস্তুতিকালে সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত আওয়ামীলীগের এক নারী কর্মী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে রবিবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন। গাজীপুর প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠের সময় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের ওই কর্মী রুবিয়া আক্তার রুবি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, টঙ্গীতে তার বাড়ির পাশের অফিসে গত ১৫আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদৎ বার্ষিকীর কর্মসূচী আয়োজন চলছিল। এসময় হঠাৎ স্থানীয় ফারুক সরকার (৪৬), মো. হান্নান মোল্লা (৪৭) ও মকবুল কাজী (৪০) ও তাপস(৩৫) সহ ১০/১২জন সন্ত্রাসী দা ও লোহার রড নিয়ে আমার উপর হামলা চালিয়ে এলোপাথারী কোপায় ও মারধর করে। এসময় আমাকে রক্ষা করতে আমার মা ও ভাই এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে মারপিট করে এবং খুন জখমের হুমকি দিয়ে এলাকা ত্যাগ করে। তাদের হামলায় আমার মাথা, ডান চোখের পাশে রক্তাক্ত জখম এবং বাম হাতের হাড় ভেঙ্গে যায়।

এ ব্যাপারে টঙ্গী পূর্ব থানায় আমার মা রোজিয়া বেগম বাদি হয়ে পরদিন চারজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরো ১০/১২জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলা দায়েরের পর থেকে আসামিরা আমাদের মামলা প্রত্যাহারের জন্য চাপ দিচ্ছে। মামলা প্রত্যাহার না করা হলে সন্ত্রাসীরা আমাকে স্বপরিবারে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এমতাবস্থায় আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি এবং আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. কামাল হোসেন জানান, ওই ঘটনায় মামলার এক ও দুই নম্বর আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।