২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জার্মানির মাঠে জিতে নেদারল্যান্ডসের মধুর প্রতিশোধ

জার্মানির মাঠে জিতে নেদারল্যান্ডসের মধুর প্রতিশোধ

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রথমার্ধে হলো এক গোল। দ্বিতীয়ার্ধে পাঁচটি। মাঝেমধ্যেই দুই পক্ষের মধ্যে ছড়াল উত্তেজনাও। ইউরো বাছাই পর্বে ছয় গোলের রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে জার্মানির মাঠ থেকে দারুণ এক জয় নিয়ে ফিরেছে নেদারল্যান্ডস।

হামবুর্গে শুক্রবার রাতে বাছাইয়ের ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচটি ৪-২ ব্যবধানে জিতেছে নেদারল্যান্ডস। এ জয়ে বাছাইয়ের প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে জার্মানদের কাছে ৩-২ গোলের হারের প্রতিশোধ নিল ১৯৮৮ সালে প্রথম ও সর্বশেষ ইউরো জেতা ডাচরা।

সমর্থকদের আনন্দে ভাসিয়ে নবম মিনিটেই এগিয়ে যায় জার্মানি। গোলরক্ষক বরাবর লুকাস শট নেওয়ার পর সের্গে জিনাব্রি ফিরতি শটে জাল খুঁজে নেন। ৪১তম মিনিটে মার্কো রয়েসের শট ফিরিয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ হতে দেননি গোলরক্ষক ইয়াসপের সিলেসেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে সতীর্থের বাড়ানো ক্রসে গোলমুখ থেকে জিনাব্রি দরকারি টোকা দিতে ব্যর্থ হলে ব্যবধান দ্বিগুণ হয়নি। ৫৫তম মিনিটে দারুণ এক সেভ করে নেদারল্যান্ডসকে সমতায় ফিরতে দেননি মানুয়েল নয়ার।

৫৯তম মিনিটে আর পারেননি নয়ার। ডান দিকে রায়ান বাবেলের ক্রস জার্মান ডিফেন্ডার টাহ ডি-বক্সের ভেতর থেকে বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ং সহজেই লক্ষ্যভেদ করেন।

ছয় মিনিট পর আরেক গোল হজম করে পিছিয়ে পড়ে তিনবারের ইউরো চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। কর্নারে ভার্জিল ফন ডাইকের হেড নয়ার ফেরানোর পর পরে ডি-বক্সের ভেতর থেকে বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন টাহ।

৭৩তম মিনিটে টনি ক্রুসের স্পট কিকে সমতায় ফেরে জার্মানি। ডি-বক্সের মধ্যে মাটাইস ডি লিখটের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

স্বাগতিকদের সমতার স্বস্তি উড়ে যায় ৭৯তম মিনিটে। সতীর্থের বাড়ানো বল অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর জর্জিনিয়ো ভিনালডামের ছোট পাস থেকে নিখুঁত টোকায় লক্ষ্যভেদ করেন ডোনিয়েল মালেন। শেষ দিকে স্কোরলাইন ৪-২ করেন ভিনালডাম।

চার ম্যাচে প্রথম হারের স্বাদ পাওয়া জার্মানি ৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে। ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড। দ্বিতীয় জয় পাওয়া নেদারল্যান্ডস ৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে।

শুক্রবার গ্রুপের অন্য ম্যাচে এস্তোনিয়ার মাঠে ২-১ গোলে জেতা বেলারুস ৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে চতুর্থ স্থানে।