২০ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তালতলীতে মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় পথচারী নিহত

তালতলীতে মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় পথচারী নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী, বরগুনা ॥ বরগুনার আমতলী-তালতলী সড়কের গেন্ডামারা এলাকায় মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় পথচারী খলিলুর রহমান (৪২) নিহত এবং যাত্রী নাসির মোল্লা ও চালক জহিরুল ইসলাম গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘটনা ঘটেছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায়।

জানাগেছে, আমতলী বাঁধঘাট চৌরাস্তা থেকে যাত্রী নিয়ে মোটর সাইকেল চালক জহিরুল ইসলাম তালতলীর নিদ্রাসকিনা যাচ্ছিল। পথিমধ্যে আমতলী-তালতলী সড়কের গেন্ডামারা এলাকায় মোটর সাইকেল নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পথচারী খলিলুর রহমানের গায়ে তুলে দেয় এবং সড়কের বাহিরে মোটর সাইকেলটি ছিটকে পরে। এতে পথচারী খলিলুর রহমান, চালক জহিরুল ইসলাম ও যাত্রী নাসির মোল্লা গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা দ্রুত তাদের উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক পথচারী খলিলুর রহমানকে মৃত্যু ঘোষনা করেন। অপর দুই আহতকে সংঙ্কটজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, যাত্রীবাহী মোটর সাইকেলটি দ্রুত গতিতে চালাচ্ছিল। পরে সড়কের গেন্ডামারা এলাকায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পথচারী খলিলুর রহমানের গায়ে তুলে দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিনজন গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তিনজনকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

নিহতের বাড়ী তালতলী উপজেলার গেন্ডামারা গ্রামে তার বাবার নাম আক্কেল আলী, গুরুতর আহত যাত্রীর বাড়ী নিদ্রাসকিনা এবং মোটর সাইকেল চালকের বাড়ী আমতলী উপজেলা চরচিলা গ্রামে।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার গৌরাঙ্গ হাজরা বলেন, মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত তিনজনের মধ্যে খলিলুর রহমানকে হাসপাতালে আনার পূর্বেই মারা গেছে। অপর দুইজনকে সংঙ্কটজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তালতলী থানার ওসি শেখ শাহিনুর রহমান বলেন, খবর পেয়েছি। লাশ আমতলী হাসপাতালে রয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।