১৭ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘হিজল তমাল’ অনুষ্ঠানে মোঃ শহিদুল্লাহ

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ বিটিভির লোকসঙ্গীতের নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘হিজল তমাল’। এ অনুষ্ঠানে আজ গাইবেন তরুণ লোকসঙ্গীত শিল্পী মোঃ শহিদুল্লাহ। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেছেন মোঃ নাসিরউদ্দীন। ‘হিজল তমাল’ অনুষ্ঠানের সঙ্গীত পরিচালনায় ছিলেন মোঃ ফারুক। অনুষ্ঠানটি বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে আজ রাত ১০টার ইংরেজী সংবাদের পর প্রচার হবে।

এই সময়ের অত্যন্ত প্রতিভাবান লোকসঙ্গীত শিল্পী মোঃ শহিদুল্লাহ। জন্ম জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার ডেফলা গ্রামে। বাবা মোঃ আবদুল হামিদ মাস্টার এবং মাতা প্রয়াত মরিয়ম বেগম। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে চতুর্থ শহিদুল্লাহ স্বীয় কণ্ঠপ্রতিভা গুণে সঙ্গীত অঙ্গনে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। বিভিন্ন মঞ্চে নিয়মিত সঙ্গীত পরিবেশন করে যথেষ্ট সুমান অর্জন করেছেন। তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং বাংলাদেশ বেতারের একজন তালিকাভুক্ত লোকসঙ্গীত শিল্পী। সঙ্গীতচর্চার অভিজ্ঞতায় গড়ে তুলেছেন ‘শহীদ শিল্পীগোষ্ঠী’ নামের একটি সংগঠন। সেখানকার সদস্যদের নিয়েই তার সঙ্গীত ক্যারিয়ারের আগামীর পরিকল্পনা। পাশাপাশি অচিরেই একটি একক এ্যালবাম প্রকাশের পরিকল্পনা করছেন তিনি। বেতার ও টেলিভিশনের গান শুনে শুনেই গানের প্রতি আগ্রহী হয়ে ওঠেন শিল্পী শহিদুল্লাহ। গ্রামে থাকাকালীন কোন প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছাড়াই বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান গেয়ে প্রশংসিত হন। পরবর্তীতে পড়াশোনার জন্য ঢাকায় থাকাকালীন বুলবুল একাডেমি অব ফাইন আর্টস (বাফা) থেকে লোকসঙ্গীত বিভাগ থেকে প্রথম শ্রেণীতে সার্টিফিকেট কোর্স সম্পন্ন করেন। বাফাতে গান শিখাকালীন উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতে তালিম নেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ ওস্তাদ ফজলুল হকের ছেলে ফায়জুল হক বিজয়, হাসান একরামুল্লাহ, নাসরিন খানের কাছে। পাশাপাশি ছায়ানটে উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতের শিক্ষক লাবলু এবং লোকসঙ্গীতে তালিম নেন বাফার লোকসঙ্গীত বিভাগের শিক্ষক সেলিম রেজা ও আবু সাঈদ সরকারের কাছে। এরপর ২০১৩ সালের ১২ জানুয়ারি বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং ২০১৮ সালে ২২ জানুয়ারি বাংলাদেশ বেতারে লোকসঙ্গীত শিল্পী হিসেবে তালিকাভুক্ত হন শিল্পী শহিদুল্লাহ। লেখাপড়া করেন কাঙ্গাল কুর্শা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণী, টনকী জোবায়দা জব্বার হাইস্কুল থেকে ১৯৯৭ সালে এসএসসি, ইসলামপুর সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে এইচ এসসি এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকর্মে অনার্সসহ ২০০৬ সালে মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। পেশাজীবন শুরু হয় সাংবাদিকতা দিয়ে। সময়ের বিবর্তনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি করার পর বর্তমানে দৈনিক জনকণ্ঠে সহ-সম্পাদক হিসেবে কর্মরত আছেন শিল্পী শহিদুল্লাহ। গান চর্চা, চাকরি চলাকালীন সময়ে ২০১৫ সালের ৩ জুন স্ত্রী সনি আক্তারের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বর্তমানে মাইমুনা শহীদ ‘সূচী’ নামে সাড়ে চার বছরের মেয়েকে নিয়ে শিল্পীর ছোট্ট সংসার। তার জন্য শুভ কামনা।