১৭ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পদবঞ্চিদের ধাওয়ায় ক্যাম্পাস ছাড়লেন ইবি ছাত্রলীগ সম্পাদক

পদবঞ্চিদের ধাওয়ায় ক্যাম্পাস ছাড়লেন ইবি ছাত্রলীগ সম্পাদক

ইবি সংবাদদাতা ॥ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবকে ক্যাম্পাস থেকে ধাওয়া দিয়ে বের করেছে পদবঞ্চিতরা। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে ক্যম্পাসে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এবং চরমপন্থীদের নিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে রাকিব। এসময় জিয়া হল মোড়ে রাকিবের কর্মীরা জড়ো হয়। রাকিবের ক্যম্পাসে আসার বিষয়টি ছাত্রলীগের বিদ্র্রোহী গ্রুপের কর্মীরা জানতে পেরে দেশীয় অস্ত্র লাঠি নিয়ে হল থেকে বের হয়। এসময় সাবেক ছাত্রলীগের নেতা, তুহিন, সাইফুল, মিজানুর রহমান মিজু, বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী ইলিয়াস জোয়ার্দার, ঠিকাদার বিকাশসহ বহিরাগতরা রাকিবের সাথে অবস্থান করছিল। এসময় পদবঞ্চিত গ্রুপের নেতা কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে ক্যাম্পাস সম্পাদককের কর্মীদের তাড়া করে। এসময় রাকিব বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অবস্থান করছিল। পরে মিছিলের অওয়াজ পেয়ে তিনি প্রধান ফটক থেকে দ্রুত পালিয়ে যান। পরে বিক্ষুব্ধ কর্মীরা গেটে গিয়ে রাকিবকে খুঁজতে থাকে এবং বহিরাগতদের ধাওয়া দিয়ে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেয়। পরে কর্মীরা জিয়া মোড়ে অবস্থান নেয়। এ ঘটনায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পবে।

এদিকে আজ শনিবার ক্যাম্পাসে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দিয়েছে কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং বিদ্রোহীরা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকিদাতা বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুকে গ্রেফতার এবং তার শাস্তির দাবিতে সকাল ১১ টায় বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ। এদিকে প্রশাসনের পক্ষথেকে জানানো হয়েছে, আইন শৃংখালা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় কোন ছাত্র সংগঠনকে আজ শনিবার মিছিল-সমাবেশ না করার জন্য বলা হয়েছে। শুক্রবার রাতে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর এবং ছাত্রউপদেষ্টার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব জানান, শনিবারের বিক্ষোভ কর্মসূচী আয়োজনের জন্য কর্মীদের সাথে দেখা করতে এসেছিলাম। কিন্তু তারা আমার উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলার চেস্টা চালায়। এসময় আমি প্রধান ফটক থেকে সরে যাই। তিনি জানান,অস্থিতিশীল পরিবেশের তৈরি হওয়ার আশঙ্কায় বিক্ষোভ কর্মসূচি বাতিল করা হয়েছে।’

এ বিষয়ে পদবঞ্চিত গ্রুপের নেতৃত্ব দেওয়া ফয়সাল সিদ্দিকি আরাফাত বলেন, ‘রাকিব ক্যাম্পাসে বহিরাগত ক্যাডারদের নিয়ে প্রবেশ করে। তার টাকা দিয়ে আসা কমিটি কর্মীরা মানে না। তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে। অবাঞ্ছিত কাউকে ক্যাম্পাসে ঢুকতে দেওয়া হবে না।’

উল্লেখ্য, ৪০ লাখ টাকার বিনিময়ে সাধারণ সম্পাদক হয়ে আসার অডিও ফাঁস হলে ক্যাম্পাসে রাকিব-পলাশ কমিটিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এই ঘোষণার পর শুক্রবারই প্রথম ক্যম্পাসে প্রবেশ করে রাকিব।