২০ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টুই টুকি ও ঘুমপরি

  • জ্যোৎস্নালিপি

ছোট্ট এক মিষ্টি মেয়ে টুকি। একদিন তার চোখে এলো রাজ্যের ঘুম। এক চোখ খুললে তার আরেক চোখ ঘুমিয়ে পড়ে। আসলে ঘুমপরি টুকির সঙ্গে মজা করছিল। টুকি ঘুমে ঢলে পরেও জেগে ওঠার চেষ্টা করে। তাই দেখে ঘুমপরি হেসে কুটিকুটি। ঘুমপরির ইচ্ছেয় একসময় টুপ করে ঘুমিয়ে পড়ল সে। আরেকটি মিষ্টি মেয়ে টুই। টুকির বন্ধু। সে এসেছে টুকির ঘরে। কদিন বাদেই বড় একটা উৎসব হবে। তাই বাবা টুকির জন্য নতুন জামা কিনে দিয়েছে। টুকির লাল টুকটুকে নতুন জামা দেখবে বলে টুইয়ের মনে আনন্দ ধরে না। ঘরে ঢুকে সে তো অবাক। টুকি ঘুমিয়ে রয়েছে। এই অবেলায় কেউ ঘুমোয় নাকি! টুই টুকির গায়ে হাত বুলিয়ে বলে, টুকি ওঠো ওঠো। নতুন জামা দেখবে না। আর আজ তো আমাদের কাশবনে লুকোচুরি খেলার কথা। দেখো, কেমন মিষ্টি রোদ রয়েছে এখনও। আকাশে রংধনু উঠেছে, দেখবে না! সবাই আমাদের জন্য বসে আছে। এত ডাকাডাকি, তবুও টুকির ঘুম ভাঙ্গে না। টুই থালা চামচ দিয়ে টুকির কানের কাছে ঝনঝনিয়ে শব্দ বাজিয়ে চলে। আড়ালে ঘুমপরি মুখটিপে হাসে। টুকি সব শুনতে পেলেও চোখ মেলতে পারে না। ঘুমপরি টুকির মাথার কাছে এসে বসে। টুকি বলে, ঘুমপরি, আমায় জাগিয়ে দাও। আমি টুইকে আমার নতুন জামা দেখাব। ঘুমপরি বলে, নতুন জামা তো মাত্র একটা। টুই তাহলে পরবে কেমন করে। টুকি গাল ফুলিয়ে বলে, ওটা তো আমার জামা। ঘুমপরি বলে, তুমি একা একা নতুন জামা পরলে টুই মন খারাপ করবে তো! দেখছ না টুইয়ের জামাটা কেমন মলিন হয়ে গিয়েছে।

টুকি ঘুমঘুম গলায় বলে, এই জামা তো আমার। আমি কাউকে দেব না। ঘুমপরি বলে, তুমি তো ভারি দুষ্টু টুকি! টুই তো তোমার বন্ধু, তোমায় কত্ত ভালবাসে; আর তুমি একা একা উৎসবে নতুন জামা পড়বে। তুমি আমায় জাগিয়ে দাও। আমি বন্ধুদের সঙ্গে কাশবনে লুকোচুরি খেলব। মজা করব।

টুই খুব মন খারাপ করে বলে, কত কিই না করলাম। তবুও টুকির ঘুম ভাঙ্গল না। টুইয়ের টুকির ওপর খুব অভিমান হলো। সে গালে হাত দিয়ে মন খারাপ করে টুকির বিছানায় বসে রইল। টুইয়ের মন খারাপ দেখে ঘুমপরির খুব মায়া হলো। সে টুইয়ের সামনে এসে বলল, ভয় পেয়ো না। আমর নাম ঘুমপরি। আমি সবার চোখে ঘুম এনে দিই। টুই বলল, তাহলে তুমিই টুকির চোখে ঘুম এনে দিয়েছো! ঘুমপরি মাথা নেড়ে বলে, হুম। তুমি খুব দুষ্টু। বিকেলটায় কাশবনে আমরা কত্ত মজা করব। তুমি কিচ্ছুটি হতে দিলে না! তুমি খুব খুব পচা। আমি তোমার সঙ্গে কথা বলব না! তুমি যাও!

ঘুমপরি টুইয়ের মলিন জামাটার কোণা ধরে বলে, আচ্ছা টুই তোমার যদি টুকির মতো একটা লাল টুকটুকে নতুন জামা থাকত, তাহলে কেমন হতো! টুই মাথা নিচু করে বলে, আমরা তো খুব গরিব। মা বলেছে, আমাদের দুটো জামা থাকতে নেই। এই দেখ না, আমার জামাটা ভালই আছে। আমার নতুন জামা লাগবে না। টুকির নতুন জামা দেখেই আমি খুশি। ঘুমপরি বলে, তা বুঝলাম। কিন্তু তোমার তো টুকির মতো নতুন জামা পেতে ইচ্ছে করে, তাই না! টুই মাথা নাড়ে। ঘুমপরির সঙ্গে গল্প করতে করতে ঘুমিয়ে পড়ে সে। টুই টুকি দুজনেই এখন ঘুমের রাজ্যে। ঘুমরাজ্যে সবাই ঘুমায়। ফুলেরাও। টুকির ঘুম ভাঙ্গতেই সে বলে, আচ্ছা ঘুম পরি, এটা কোথায় এলাম?

ঘুমপরি বলে, এটা হচ্ছে ঘুমরাজ্য। টুই হাত দিয়ে চোখ কচলাতে কচলাতে বলে, এখানে ফুলেরা ঘুমিয়ে আছে কেন? ঘুমপরি বলে, এই দেখ জাদুর কাঠি দিয়ে সবাইকে জাগিয়ে দিচ্ছি। জাদুরকাঠি ঘোরাতেই ফুলেরা পাঁপড়ি খুলে হেসে উঠে। সাদা সাদা কাশফুল তার শরীর দুলিয়ে বলল, টুই টুকি ঘুমরাজ্যে তোমাদের অভিবাদন। টুকি বলে, বাহ! ভারি মজা তো। এই তো কাশবন পেয়ে গেছি। চলো টুই, আমরা লুকোচুরি খেলি। ঘুমপরি বলে, বারে! আমি তোমাদের এখানে নিয়ে এলাম আর তোমরা কিনা আমাকে নেবার কথা ভাবছই না। টুই টুকি ঘুমপরি হাত ধরে কাশবনে ঘুরে বেড়ায়। টুই বলে, ঘুমরাজ্যে ভারি মজা। এখানে মা খেলতে বারণ করে না। বাবা পড়তে বলে না। ঘুমপরির সঙ্গে গল্প করতে করতে তারা একটা শাপলা পুকুরের ধারে এসে বসে। ওদের দেখে সাদা রঙের শাপলা বলে, আমকে চিনতে পেরেছ? বলত আমি কে? টুকি বলে, তোমার নাম শাপলা। তুমি তো আমাদের জাতীয় ফুল। এখানে এলে কী করে! শাপলা মিষ্টি হেসে বলে, তোমরা এলে তাই আমিও তোমাদের সঙ্গে খেলতে চলে এলাম। ঘুমপরি টুই টুকিকে ঘুরে ঘুরে ঘুমরাজ্য দেখায়। আর বলে, এখানে সবাই যেমন শান্ত, তেমন উচ্ছল আবার দুরন্ত। কোমল সবার মন। একটুও একটুও রাগ করে না কেউ। সব কিছু ভাগ করে করে। ভাগ করে খায়। কেউ কাউকে হিংসে করে না। কারও মনে দুঃখ দেয় না। টুকি বলে, খুব ভাল। এখন থেকে আমিও সবকিছু ভাগ করে নেব। ঘুমপরি টুইটুকিকে আদর করতেই আবার ঘুমিয়ে পড়ে ওরা। ঘুম ভেঙ্গে টুকি দেখে টুই বিছানার কোণে ঘুমিয়ে রয়েছে। টুকি টুইকে বলে, টুই ওঠো ওঠো। নতুন জামা দেখবে না। টুই চোখ খুলে বলে, ঘুমিয়ে পড়েছিলাম। কই দেখাও তোমার নতুন জামা। টুকি আলমারি খুলে লাল টুকটুকে একটা জামা বের করে। টুই জামাটায় হাত বুলিয়ে মনে মনে বলে, আমারও যদি এমন একটা লাল জামা থাকত। টুইকে অবাক করে দিয়ে টুকি বলে, এই সুন্দর লাল জামাটা এখন থেকে তোমার। কিন্তু এটা তো তোমার বাবা তোমায় উৎসবে পরবে বলে কিনে দিয়েছে।

তাতে কি! বাবাকে বলব, আমাকে আরেকটা নতুন লাল জামা কিনে দিতে। টুই বলে, তোমার জামা নিলে মা আমায় বকবে। একটুও বকবে না। আমরা মাকে বলব ঘুমপরির কথা। ঘুমপরি আমাদের বলেছে, সবকিছু ভাগ করে নিতে হয়। টুই টুকির দুজনেরই এখন নতুন লাল জামা হয়েছে। টুকটুকে লাল জামা গায়ে গলা শিউলিমালা পরে কাশবনে দুরন্ত ছোটে ওরা। ঘুমপরি আড়ালে দাঁড়িয়ে ওদের দেখে খুশি হয়!

অলঙ্করণ: আইয়ুব আল আমিন

নির্বাচিত সংবাদ