১৭ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মত প্রকাশের জন্য পিটুনীতে মৃত্যু গণতন্ত্রের জন্য ভয়ংকর : মেনন

মত প্রকাশের জন্য পিটুনীতে মৃত্যু গণতন্ত্রের জন্য ভয়ংকর :   মেনন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মত প্রকাশের জন্য পিটুনীতে মৃত্যু গণতন্ত্রের জন্য ভয়ঙ্কর বলে মন্তব্য করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

মঙ্গলবার শিশু অধিকার সপ্তাহ পালন উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত ছেলে মেয়েদের জন্য পরিচালিত ‘দীপশিখা’ স্কুলে আয়োজিত এক মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এদিকে গফফোরামের পক্ষ থেকে আবরার হত্যাকারীদের দৃষ্টিান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বলা হয়েছে, সরকারী দলের অত্যাচার এখন মানুষের জানমাল আর নিরাপদ নয়।

রবিবার রাত ২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলের সিঁড়ি থেকে তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই হলের শিক্ষার্থীদের বরাত দিয়ে পুলিশ বলছে, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরারকে রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তার এ হাজহা ১১ নম্বর কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে যায় কয়েকজন। পরে শিক্ষার্থীরা রাত ২টার দিকে হলের দ্বিতীয়তলার সিঁড়িতে তার লাশ পায়।

লাশের সুরতহাল প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আবরারের দুই কাঁধের নিচ থেকে হাতের কব্জি পর্যন্ত কালসিটে ছিল। একইভাবে কোমর থেকে পায়ের গোড়ালি পর্যন্ত ছিল জখমের দাগ। আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মামলা হয়েছে এই ১০জনসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত সবাইকে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে রবিবার সন্ধ্যায় স্থায়ীভাবে বহিস্কার করা হয়েছে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে বইছে নিন্দার ঝড়। হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে উত্তাল বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়।

মেনন বলেন, এমনিতেই আমাদের দেশসহ সারা বিশে^ গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা অনেকখানি সংকুচিত। এর সাথে অসহিষ্ণুতা যোগ হওয়ায় তা আরও বিভষিকাময় হয়েছে। এটা শিশুদের মনে বিরূপ প্রভাবও ফেলছে। বাংলাদেশকে শিশুদের জন্য বাসযোগ্য করতে হলে তাদের জন্য সবধরণের সুযোগ অবারিত করতে হবে। শিশুকাল থেকে তাদের উদার মানসকাঠামো গড়ে দিতে হবে যাতে তারা অন্যের মতকে সম্মান করতে শেখে। শিশুর শৈশব তাকে ফিরিয়ে দিতে হবে।

ঢাকার গুলবাগে স্থাপিত স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করেন বেগম সুফিয়া কামাল ও সাবেক জাতীয় অধ্যাপক সুলতানা সরওয়াত জামান। সম্মানিত অতিথির বক্তৃতায় সংসদ সদস্য লুৎফুন নেসা খান বিউটি বলেন, এসব ছেলে মেয়েদের জন্য পাড়ার মধ্যেই একটু খেলার স্থান হলে তাদের পথে পথে ঘুরতে হোত না। তিনি বুয়েটের ছাত্র আবরারের হত্যার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় স্থানীয় কাউন্সিলর গোলাম আশরাফ তালুকদার রাস্তায় পানিবদ্ধতা নিরসনের প্রতিশ্রুতি দেন। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ব্র্যাক ব্যাংকের ডি এমডি ও কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানে শিশুরা ‘ভালবাসার আলো’ নামে একটি ছোট নাটিকা প্রদর্শন করে।

সরকারী দলের অত্যাচারে মানুষের জানমাল নিরাপদ নয় ॥ ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরাম বলছে, গত রবিবার বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে ছাত্রলীগ পিটিয়ে হত্যা করে। দীর্ঘদিন থেকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগ সাধারণ ছাত্রদের উপর চরম অত্যাচার নির্যাতন চালিয়ে আসছে, দুর্নীতি-চাঁদাবাজী-টেন্ডারবাজী নিত্যনৈমত্তিক ঘটনা। সরকারী দলের অত্যাচারে মানুষের জানমাল নিরাপদ নয়।

এই হত্যাকান্ডের ব্যাপারে যৌথ বিবৃতিতে গণফোরাম ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক এডভোকেট মহসিন রশীদ ও সদস্য সচিব মো. মিজানুর রহমান নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। খুনিদের গ্রেফতার করে দলীয় সংকীর্ণতার উর্ধে থেকে দ্রুত বিচার নিশ্চিতের দাবী জানান তারা। নেতারা আবরারের পরিবারের প্রতি দুঃখ ও সমবেদনা প্রকাশ করেন। স্বৈরশক্তির বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।