২০ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত

  • যাত্রী দুর্ভোগ চরমে

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ পদ্মায় তীব্র স্রোত ও নাব্য সঙ্কটে গত কয়েকদিন ধরে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এ রুটে চলাচলকারী মোট ১৬ ফেরির মধ্যে এখন চলছে মাত্র ৫ ফেরি। আর চলাচলকারী ফেরিগুলোর গন্তব্যে পৌঁছতে নির্দিষ্ট সময়ের বেশি সময় লাগছে। এ কারণে গত কয়েকদিনে দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া ঘাটে পারাপারের অক্ষোয় রয়েছে প্রায় অর্ধ সহ¯্রাধিক যানবাহন। এর মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাকের সংখ্যাই বেশি। এদিকে দেশের গুরুত্বপূর্ণ এই ঘাটে ফেরি সার্ভিস বিঘিœত হওয়ার কারণে যাত্রী সাধারণের অবর্ণনীয় দুর্গতির পাশাপাশি এই অঞ্চলের অর্থনীতিতেও কুপ্রভাব পড়ছে। বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) নাসির মোহাম্মদ চৌধুরী বলেন, পদ্মায় তীব্র স্রোত ও নাব্য সঙ্কটের কারণে মঙ্গলবার রাত ৮টা থেকে পুরোপুরি ফেরি সার্ভিস বন্ধ রাখা হয়। বুধবার সকাল ৬টা থেকে ছোট আকারের ‘ফেরি ফরিদপুর’, ‘ফেরি কুমিল্লা’ ও মাঝারি আকারের ‘ফেরি ক্যামেলিয়া’ দিয়ে পারাপার শুরু হয়। পরবর্তীতে দুপুরের দিকে রো রো ফেরি শাহ মখদুম এবং রো রো ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর দিয়ে পারাপার করা হয়।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে ছোট দুটি ও পরে আরও একটি মোট তিনটি ফেরিতে জরুরী কিছু যান পারাপার করা হয়। তবে ড্রেজিং চললেও অবস্থার উন্নতি হচ্ছে না। তাই দুর্ভোগ লেগেই আছে। রড ভর্তি করে চট্টগ্রাম থেকে আসা একটি ট্রাক চারদিন ধরে শিমুলিয়ায় আটকা পরেছে। ট্রাকের চালক মনির হোসেন জানান, দিন যাচ্ছে, কিন্তু পাড় হতে পারছি না। আর অপেক্ষায় থাকা ট্রাকের সংখ্যাও বেড়ে যাচ্ছে।

এদিকে পারাপারের এই সঙ্কটের কারণে অনেকে গাড়ি নিয়ে ফিরে গেছেন। পারিবারিক জরুরী কাজে পরিবার পরিজন নিয়ে খুলনায় যাচ্ছিলেন রাজধানীর রামপুরা বাসিন্দা মেহেদী হাসান। মঙ্গলবার রাতে ফেরি বন্ধ থাকায় পরিবার পরিজন নিয়ে পড়েন বিপাকে। পরে স্থানীয় একটি রিপোর্টে রাত কাটিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় বুধবার সকালে পদ্মা পাড়ি দিয়েছেন।

বাতাসের তীব্রতায় খর¯্রােতা পদ্মায় আঁছড়ে পড়ছে বড় বড় ঢেউ, প্রবাহিত হচ্ছে প্রচ- গতিবেগে ঘুর্ণায়মান ¯্রােত। এখন পদ্মা নদীর মাওয়া পয়েন্টে প্রতি সেকেন্ডে ১ লাখ ৪০ হাজার ঘন মিটার পানি প্রবাহিত হচ্ছে। বৈরি পরিস্থিতিতে ¯্রােতের তীব্রতা বৃদ্ধিতে ভয়ঙ্কর রূপ নেয় খর¯্রােতা পদ্মা। আর প্রচ- ¯্রােতের বিপরীতে চলতে গিয়ে মাঝে মাঝেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলছে ফেরিগুলো।

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ৫ দিনেও চালু হয়নি লঞ্চ চলাচল ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা রাজবাড়ী থেকে জানান, রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে লঞ্চ এবং ফেরি চলাচলে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। গত ৫ দিনেও চালু হয়নি এরুটে লঞ্চ চলাচল ।

স্রোতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ফেরিগুলো চলতে না পারায় দৌলতদিয়া ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় আটকে থাকছে শত শত যাত্রীবাহী পরিবহনসহ পণ্য বোঝাই ট্রাক। ফলে গত কয়েকদিন ধরেই দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের রাজবাড়ীর এই দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে এসে যাত্রীরা বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।

বুধবার সকাল থেকে দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের ৪ কিমি পর্যন্ত যানবাহনের দীর্ঘ সারি রয়েছে নদী পাড়ের অপেক্ষায়।

নির্বাচিত সংবাদ