১৬ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টি২০তে পাকিস্তানকে ‘হোয়াইটওয়াশ’ করল শ্রীলঙ্কা!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাকিস্তানের কাছে ২-০’ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজে হারের বদলা নিল শ্রীলঙ্কা। টি২০তে র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দলটিকে সফরকারীরা ‘হোয়াইটওয়াশ’ করল ৩-০ ব্যবধানে! সত্যি আশ্চর্যের। ৬৪ ও ৩৫ রানের পর শেষ ম্যাচে ১৩ রানের দারুণ জয় পেয়েছে লঙ্কানরা। লাহোরে বুধবার নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৪৭ রান করে দাসুন শানাকার দল। জবাবে ৬ উইকেটে ১৩৪ রানে থমকে যায় ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিদের সংগ্রহ। সর্বোচ্চ ৫০ বলে ৫২ রান করে আউট হন হারিস সোহেল। বাবর আজমের ব্যাট থেকে আসে ২৭ রান। শেষ দিকে আশা জাগিয়েও শেষ রক্ষা করতে পারেননি ইফতিকখার আহমেদ (৮ বলে ১৭*) ও ওয়াহাব রিয়াজ (৬ বলে ১২*)। ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ৩ ও লাহিরু কুমরা নিয়েছেন ২ উইকেট। ম্যাচ ও সিরিজসেরা হয়েছেন হাসারাঙ্গা। নিরাপত্তাজনিত কারণে বহুল আলোচিত এ সফরে অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গাসহ নিয়মিত ১০ ক্রিকেটারকে ছাড়া অনেকটা দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে লঙ্কানদের এমন উদ্ভাবিসত সাফল্য নিশ্চই স্মরনীয় হয়ে থাকবে।

গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে অবশ্য শুরুতেই পাকিস্তানী দুর্ধর্ষ বোলিংয়ের মুখে পড়তে হয়েছিল শ্রীলঙ্কানদের। ৩০ রানের মধ্যেই হারাতে হয় প্রথমসারির তিন ব্যাটসম্যানকে। দানুস্কা গুনাথিলাকা ৮, সামারাভিক্রমা ১২ এবং ভানুকা রাজাপাক্ষে আউট হন ৩ রান করে। ৫৮ রানের মাথায় ১৩ রান করে রানআউট হয়ে ফিরে যান এ্যাঞ্জেলো পেরেরা। ওশাদা ফার্নান্দোই শুধুমাত্র পাকিস্তানি বোলারদের সামনে বুক চিতিয়ে লড়াই করতে পারলেন। ৪৮ বলে তিনি অপরাজিত থাকেন ৭৮ রানে। ৮টি বাউন্ডারির সঙ্গে তিনি মারেন ৩টি ছক্কার মার। দাসুন শানাকা ১২, মাধুশঙ্কা ১ এবং ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা আউট হন ৬ রান করে। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১৪৭ রানের স্কোর গড়ে সফরকারীরা। পাকিস্তানের হয়ে মোহাম্মদ আমির ৩, ইমাদ ওয়াসিম এবং ওয়াহাব রিয়াজ নেন ১টি করে উইকেট।

ঘরের মাঠে পুর্ণশক্তির দল নিয়ে নিজেদের টি২০ ইতিহাসে প্রথমবারের মতো শ্রীলঙ্কার কাছে সিরিজ হারের কষ্টটা যে শেষ পর্যন্ত এভাবে ‘হোয়াইটওয়াশের’ লজ্জায় রূপ নেবে, সরফরাজ আহমেদের দল বোধহয় কল্পনাও করেনি। পাকিস্তান নিজেরাই প্রমাণ করেছে কেন তারা ‘আনপ্রেডিক্টেবল’!