১০ অক্টোবর ২০১৯

বিন্দিয়া খানের একক সঙ্গীতে মুগ্ধ দর্শক-শ্রোতা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জাতীয় জাদুঘর ও সুরাঙ্গনা সাংস্কৃতিক সংঘের যৌথ উদ্যোগে শিল্পী বিন্দিয়া খানের একক সঙ্গীত সন্ধ্যা সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনের প্রথম ভাগে ছিল আলোচনা সভা। এতে জাদুঘরের মহাপরিচালক রিয়াজ আহমেদের সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সঙ্গীতজ্ঞ আজাদ রহমান, সাংবাদিক কাজী রওনাক হোসেন ও সেলিনা আজাদ প্রমুখ।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, গুণী শিল্পী বিন্দিয়া খান তার ভক্ত, শুভার্থী ও শ্রোতা-দর্শকদের ভালবাসার প্রতি যথেষ্ট আস্থাশীল। তিনি সঙ্গীতেই নিবেদন করেছেন তার জীবন। তার ধ্যান, জ্ঞান, কর্মপ্রয়াস সবকিছুই সঙ্গীতকে ঘিরে। সভায় অতিথিরা বলেন, সঙ্গীত সাধনা বিন্দিয়ার পারিবারিক ঐতিহ্য।

নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে তিনি সঙ্গীতকে নিয়েছেন একান্ত আপন করে। বিন্দিয়া খানের সঙ্গীত জীবনের শুরু উচ্চাঙ্গসঙ্গীতে। তালিম নিয়েছেন আধুনিক বাংলা গান, হিন্দি গান, দেশাত্মবোধক সঙ্গীত ও আধুনিক ফোক সঙ্গীতে। আয়োজনের দ্বিতীয় ভাগে দর্শক-শ্রোতাদের সামনে মনোজ্ঞ সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী বিন্দিয়া খান।

এ সময় তিনি ‘একবার যেতে দেনা আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়’, ‘সব কথা শেষ তবু যেন শেষ নয়’, ‘একি সোনার আলোয় জীবন ভরিয়ে দিলে’, ‘কি যে করি’সহ বিভিন্ন জনপ্রিয় দেশাত্মবোধক ও আধুনিক গান পরিবেশন করেন।

শিল্পী বিন্দিয়া খান প্রখ্যাত সঙ্গীতসাধক ওস্তাদ গুল মোহাম্মদ খানের নাতনি ও ওস্তাদ মোহাম্মদ ইয়াসিন খানের সুযোগ্য কন্যা। তিনি বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত সঙ্গীতশিল্পী।