১৫ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাকিস্তানের ড্রোনে জঙ্গীদের পাঁচটি স্যাটেলাইট ফোন সরবরাহ করা হচ্ছিল

পাকিস্তানের ড্রোনে জঙ্গীদের পাঁচটি স্যাটেলাইট ফোন সরবরাহ করা হচ্ছিল

অনলাইন ডেস্ক ॥ বুধবার সন্ধ্যায় ফের সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানের ড্রোন উড়তে দেখা গেল পঞ্জাবের ফিরোজপুরের আকাশে। এই নিয়ে তিন দিনে দু’বার একই এলাকায় সন্দেহজনক ভাবে পাকিস্তানি ড্রোন চিহ্নিত করল বিএসএফ। সংবাদসংস্থা সূত্রে খবর, এদিন সন্ধে সাড়ে ৭টা নাগাদ একটি ড্রোন দেখা যায় হজরসিংওয়ালা গ্রাম থেকে। আবার তেন্ডিওয়ালা অঞ্চল থেকে রাত ১০টা ১০মিনিট নাগাদ আরেকটি ড্রোন দেখতে পাওয়া যায়।

ফিরোজপুর জেলার পুলিশ সুপার সুখবিন্দর সিংহ সংবাদমাধ্যমকে এদিন বলেন, ‘‘আমরা বেশ কয়েকদিন ধরেই ড্রোনের মত কোনও যন্ত্রকে উড়তে দেখছি ভারতের আকাশসীমায়। বিষয়টি বিএসএফ-এরও নজরে এসেছে। আমরা তদন্ত করছি।’’

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে পঞ্জাব পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, গত ১০ দিনে আট বার এমন ঘটনা ঘটেছে পঞ্জাবে। সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢুকে পড়ছে ওই ড্রোনগুলি। উন্নত প্রযু্ক্তিতে তৈরি ওই ড্রোনগুলি পাঁচ কেজি পর্যন্ত ওজন বইতে পারে। মাটির কাছাকাছি উচ্চতায় থেকেই দ্রুত গতিতে সেগুলি উড়তে সক্ষম। ফলে নজর এড়িয়ে যেতেও সক্ষম ড্রোনগুলি।

সম্প্রতি পঞ্জাবেরই তরণতারণ জেলায় অর্ধেক পুড়ে যাওয়া একটি ড্রোন উদ্ধার হয়। যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেওয়ায় সেটি পাকিস্তানে ফিরে যেতে পারেনি। পরে আটারি এলাকায় জঙ্গিরাই সেটি পুড়িয়ে দেয় বলে ধারণা পুলিশের। এর পর অক্ষত অবস্থায় আরও একটি ড্রোন পঞ্জাব পুলিশের হাতে আসে বলে জানা গিয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্মী জানিয়েছেন, ওই ড্রোনে জঙ্গীদের পাঁচটি স্যাটেলাইট ফোন সরবরাহ করা হচ্ছিল। পুলিশ সেগুলি উদ্ধার করেছে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা