১০ অক্টোবর ২০১৯

দুই হাজার অনলাইন জুয়ার ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছে ॥ জব্বার

দুই হাজার অনলাইন জুয়ার ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছে ॥  জব্বার

অনলাইন ডেস্ক ॥ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, গত ডিসেম্বরের পর থেকে ২২ হাজার পণ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট ও দুই হাজার অনলাইন জুয়ার ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছে ।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর নিউ এলিফ্যান্ট রোডের কম্পিউটার সিটি সেন্টারে পাঁচ দিনব্যাপী ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার ২০১৯’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, বাংলাদেশ আর আমদানিনির্ভর জাতি নয়, বরং বিভিন্ন দেশে এখন পণ্য রফতানি করছে। বিশ্বের সাতটি রেফ্রিজারেটর উৎপাদনকারী দেশের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ডিজিটাল পণ্য রফতানিকারকদের ১০ শতাংশ হারে প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমরা এক সময় আইসিটিতে ৩২৪ বছর পিছিয়ে ছিলাম। এখন বিশ্বের অন্য দেশগুলোর সঙ্গেই চলছে বাংলাদেশ। ২০২১ সালের মধ্যে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে অপটিক্যাল ফাইবার ও স্কুল-কলেজে ডিজিটাল মাধ্যমে পাঠদানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

কম্পিউটার সিটি সেন্টারে (মাল্টিপ্ল্যান সেন্টার) জাঁকজমকপূর্ণভাবে শুরু হয়েছে ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার-২০১৯। ‘গো ডিজিটালি মেক ইয়োর লাইফ হ্যাসল ফ্রি’ স্লোগানে ১০ম বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ মেলা চলবে আগামী ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত। মেলায় বাংলাদেশের শীর্ষ আইসিটি পণ্য আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরা বিশ্বের মানসম্পন্ন ব্র্যান্ডের আধুনিক প্রযুক্তিপণ্য প্রদর্শন করছে।

প্রতি বছরের মতো এবারও বিশেষ আয়োজন হিসেবে থাকছে শিশুকিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, ফ্রি গেমিং ও ইন্টারনেট ব্রাউজিং সুবিধা। মেলায় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার উন্মুক্ত রাখা হয়েছে।

কম্পিউটার সিটি সেন্টারের ১ম থেকে ১০ম তলা পর্যন্ত ১ লাখ ৬৫ হাজার বর্গফুট এলাকা জুড়ে মার্কেটের ৭৪৬টি প্রতিষ্ঠান তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিপণ্য ও কলাকৌশল মেলায় প্রদর্শন করবে।

মেলা কমিটির আহ্বায়ক তৌফিক এ এহসানের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইর পরিচালক আবু মোতালেব, হাফেজ হারুন, মনিরুল ইসলাম জুয়েল, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক ভূইয়া, কম্পিউটার সিটি সেন্টারের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত সরকার, স্থানীয় কাউন্সিলর জসিম উদ্দিনসহ ব্যবসায়ীসহ বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির নেতারা।