১৬ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পটিয়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধের রমরমা ব্যবসা, জরিমানা

পটিয়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধের রমরমা ব্যবসা, জরিমানা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া ॥ চট্টগ্রামের পটিয়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ ও অনুমোদনহীন বিভিন্ন কোম্পানীর ওষুধের রমরমা ব্যবসা চলছে। দীর্ঘদিন ধরে পটিয়া পৌর সদর ও উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কিছু অসাধু ব্যবসায়ী এই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে চার দোকানদারকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়েছে। তবে অভিযানের খবর পেয়ে পৌর সদরের বিভিন্ন এলাকার ওষুধের দোকান বন্ধও করেছে। পোস্ট অফিস মোড় এলাকার সেন্ট্রাল ফার্মেসিকে ২০ হাজার টাকা, সোহা ফার্মেসি ৫০ হাজার টাকা, মেসার্স মোতালেব ফার্মেসিকে ১০ হাজার টাকা ও বাংলাদেশ ফার্মেসিকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, পটিয়া উপজেলায় অসংখ্য দোকানে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও অনুমোদনহীন বিভিন্ন কোম্পানীর ওষুধের রমরমা ব্যবসা চলছে। তাছাড়া যৌন উত্তেজক নিষিদ্ধ ভায়াগ্রা ওষুধসহ ভারতের বিভিন্ন ওষুধ দীর্ঘদিন ধরে পটিয়ার বিভিন্ন ফার্মেসিতে প্রকাশ্যে বিক্রী করা হচ্ছে। গোপন সংবাদে খবর পেয়ে ইউএনও ও ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট হাবিবুল হাসান অভিযান চালান। এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের ড্রাগ সুপার মো. ইমরান হোসেন ও পটিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার মোহাম্মদ খালেদসহ পুলিশের একটি টিম। অভিযানের শুরুতে ফার্মেসির সামনে একজন করে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পুলিশ মোতায়েনের কারণ অভিযানের খবর অগ্রিম পাওয়ার কারণে ফার্মেসি মালিকরা এতদিন দোকান বন্ধ করে গাঢাকা দেন। যার কারণে অভিযান এতদিন সফল হয়নি।

ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান জানিয়েছেন, অভিযানের সময় নিষিদ্ধ যৌন উত্তেজক ভায়াগ্রা ওষুধ, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ এবং অনুমোদনহীন বিভিন্ন কোম্পানীর ওষুধ মিলেছে। অভিযানে ৪টি দোকানদারকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়েছে। এই অভিযান অব্যাহত রাখবেন বলে জানান।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া