১৫ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাহিত্যে নোবেল পেলেন অস্ট্রীয় ও পোলিশ লেখক

সাহিত্যে নোবেল পেলেন অস্ট্রীয় ও পোলিশ লেখক
  • আজ ঘোষণা শান্তি পুরস্কার

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার নোবেল। সাহিত্যে ২০১৯ ও ২০১৮ সালের নোবেল ঘোষণা করেছে সুইডিশ একাডেমি। স্থানীয় সময় দুপুর একটার (বাংলাদেশ সময় প্রায় বিকেল ৫টা) দিকে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। এ বছর পুরস্কারটি পেয়েছেন অস্ট্রিয়ান ঔপন্যাসিক, নাট্যকার ও অনুবাদক পিটার হ্যান্দকে। অন্যদিকে ২০১৮ সালের স্থগিত হওয়া নোবেল পেয়েছেন পোল্যান্ডের লেখক, অধিকারকর্মী ও বুদ্ধিজীবী ওলগা তুকারজুক। খবর গার্ডিয়ানের।

একসঙ্গে দুই বছরের সাহিত্যে নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে নোবেল কমিটি। উভয় বিজয়ী ৯০ লাখ করে ক্রোনার পাবেন। সাহিত্যে অবদানের জন্য এর আগে পিটার হ্যান্দকে ফ্রাঞ্জ কাফকা পুরস্কার, আমেরিকা এ্যাওয়ার্ড, ইন্টারন্যাশনাল ইবসেন এ্যাওয়ার্ডসহ একাধিক আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন। অন্যদিকে গত বছরই ‘ফ্লাইটস’ উপন্যাসের জন্য ম্যান বুকার ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ পান ওলগা তুকারজুক। এবারই প্রথম সাহিত্যে আগের বারেরটাসহ দুই বছরের নোবেল একসঙ্গে ঘোষণা করা হলো। শুধু তাই নয়, এবারই প্রথম এ বিভাগে নোবেল ঘোষণার আগে নির্ধারিত দিনক্ষণের ব্যাপারেও জানানো হয়। বিতর্কের কারণে গত বছর এ বিভাগে পুরস্কার স্থগিত রাখা হয়।

নোবেল জয়ী পোলিশ লেখক ওলগা তুকারজুক গত বছর তার ‘ফ্লাইটস’ উপন্যাসের জন্য সাহিত্যের আরেক মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ম্যান বুকার জিতেছিলেন। পোল্যান্ডে ১৯৬২ সালে তার জন্ম। ৫৭ বছর বয়সী লেখিকা ওলগা পোলিশ সাহিত্যের বর্তমান প্রজন্মের ঔপন্যাসিকদের মধ্যে প্রথম সারির একজন। এদিকে ২০১৯ সালের সাহিত্যে নোবেল জয়ী ৭৬ বছর বয়সী অস্ট্রিয়ান নাট্যকার ও ঔপন্যাসিক পিটার হ্যান্দকের জন্ম ১৯৪২ সালে। উপন্যাস ও নাটক লেখার পাশাপাশি অনুবাদক হিসেবেও খ্যাতি রয়েছে এই নোবেল জয়ীর।

গত বছর সাহিত্য বিষয়ক নোবেল কমিটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আলকচিত্রী জ্যঁ ক্লদ আর্নোর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি সংক্রান্ত অভিযোগ ও স্বচ্ছতার প্রশ্ন ওঠে। সে সময় হয়রানির শিকার নারীদের বরাত দিয়ে খবরও প্রকাশ করে সুইডিশ সংবাদমাধ্যম। আর্নো সুইডিশ একাডেমির সদস্য কবি ক্যাটরিনা ফ্রস্টেনশনের স্বামী। যৌন হয়রানি ছাড়াও সে সময় তার ব্যাপারে সম্ভাব্য নোবেল বিজয়ীদের নাম ফাঁস করারও অভিযোগ ওঠে। সব মিলিয়ে সেবার এ বিভাগে নোবেল স্থগিত করা হয়। সরাসরি নোবেল ফাউন্ডেশনের ওপর অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৮ সালেই প্রথমবারের সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার ঘোষণা বাতিল করা হয়। এর আগে দ্বিতীয় ও প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়ও এ বিভাগে পুরস্কার দেয়া হয়নি। তবে সেগুলো বাতিলের পেছনে কারণ ছিল তখনকার রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ ও সংঘাত।

আগামীতে যাতে নোবেল কমিটি এ ধরনের সমালোচনার মুখে না পড়ে সে ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ বিশেষ সাবধানতা অবলম্বন করছে উল্লেখ করে এক বিবৃতিতে নোবেল ফাউন্ডেশনের কার্যনির্বাহী পরিচালক লারস হেইকেনস্টেন জানান, জনগণের আস্থা পুনর্প্রতিষ্ঠা ও কমিটিতে স্বচ্ছতার ব্যাপারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তার সংস্থা। এরপর থেকে নোবেল কমিটিতে যুক্ত হওয়া সব সদস্যের যাপিত জীবনও পর্যালোচনা করা হবে। ১৯০১ সাল থেকে নিয়মিত নোবেল পুরস্কার দেয়া হচ্ছে। চিকিৎসা, পদার্থ, রসায়ন, সাহিত্য, শান্তি ও অর্থনীতি- এ ছয়টি বিভাগে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত করে নোবেল কমিটি। নোবেলের জন্য এবার মনোনয়ন পেয়েছেন ৩০১ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে ৭৮টি প্রতিষ্ঠান।

২০১৯ সালের নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা শুরু হয়েছে গত সোমবার থেকে। ওইদিন স্টকহোম ক্যারোলিনস্কা ইনস্টিটিউট থেকে চিকিৎসাবিদ্যায়, দ্য রয়াল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স থেকে মঙ্গলবার পদার্থবিদ্যায় ও বুধবার রসায়নবিদ্যায় বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। আজ শুক্রবার নরওয়ের রাজধানী অসলো থেকে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করবে। এরপর আগামী সোমবার (১৪ অক্টোবর) রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি অব সায়েন্স দ্য ব্যাংক অব সুইডেন অর্থনীতিতে নোবেল বিজয়ীর নাম ঘোষণা করবে।