১৬ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাবির খ ইউনিটে পাসের হার ২৩.৭২

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ‘খ’ ইউনিটের অধীন স্নাতক প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় ২৩ দশমিক ৭২ শতাংশ পরীক্ষার্থী ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

উত্তীর্ণ ১০ হাজার ১৮৮ জনের মধ্যে আসন সীমাবদ্ধতার কারণে দুই হাজার ৩৭৮ শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোতে স্নাতক করার সুযোগ পাবেন। রবিবার দুপুরে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করেন। এ সময় ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়ক ও কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক আবু মোঃ দেলোয়ার হোসেন, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ রহমত উল্লাহ, অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার আদিত্য উপস্থিত ছিলেন।

গত ২১ সেপ্টেম্বর এই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর মোট ৪৫ হাজার ১৮ জন ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য আবেদন করলেও শেষ পর্যন্ত অংশ নেন ৪২ হাজার ৯৫৪ জন। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সাল এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইট (admission.eis.du.ac.bd) থেকে ফল জানতে পারবেন। তাছাড়া যে কোন মোবাইল ফোন থেকে DU<>KHA<>Roll টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফল জানা যাবে।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১ থেকে ৬০০০ মেধাক্রমধারী শিক্ষার্থীদের আগামী ১৬ অক্টোবর বিকেল ৫টা থেকে ৩১ অক্টোবর বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ফরম ও বিষয়ের পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে। কোটায় আবেদনকারী ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর তারিখের মধ্যে কলা অনুষদের ডিন অফিস থেকে কোটার ফরম সংগ্রহ করে সেখানেই জমা দিতে হবে। ফলাফল নিরীক্ষণের জন্য নির্ধারিত ফি দিয়ে আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর মধ্যে কলা অনুষদের ডিন অফিসে আবেদন করা যাবে। এছাড়া অন্যান্য তথ্যের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট দেখতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০০ নম্বরের মধ্যে ১৭৯ দশমিক ২৫ শতাংশ নম্বর পেয়ে মেধাতালিকায় প্রথম হয়েছেন বেগম বদরুন্নেছা মহিলা কলেজ থেকে পাস করা আফরাজ আরসিয়ান। ১৭৭ দশমিক ৭৫ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন ময়মনসিংহের সৈয়দ শহীদ নজরুল ইসলাম কলেজ থেকে পাস করা নুরুন্নাহার উর্মী এবং জামালপুরের তারাকান্দা কলেজের বিশ্বময় শর্মা প্রমীত হয়েছে তৃতীয়।