১৪ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সানায়া ইরানীর নতুন করে ফেরা

  • অনন্য রেজা করিম

সানায়া ইরানীকে ছোট পর্দার সুপারস্টার বিবেচনা করা হতো এক সময়ে। হিন্দী টিভি সিরিয়ালের অঙ্গনে তার পদচারণা ছিল চোখে পড়ার মতো। এখন তার বয়স ৩৬ চলছে। বয়স বাড়লেও এখনও চনমনে তরতাজা প্রাণবন্ত রয়ে গেছেন। একজন দুর্দান্ত সুন্দরী অভিনেত্রী হিসেবে তার আলাদা পরিচিতি ছিল। বেশ কবার সেরা সুন্দরী নারীর তালিকায় ঠাঁই পেয়েছেন এই পার্সি অভিনেত্রী। বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী বোমান ইরানী ও সানিয়ার মতো পার্সি ধর্মাবলম্বী। বোমান ইরানী অভিনয়ে আসার আগে মডেল ফটোগ্রাফার হিসেবে বিখ্যাত ছিলেন। বোমান ইরানীর তোলা ছবি দিয়ে প্রোফাইল তৈরি করেছিলেন সানায়া। জমা দিয়েছিলেন বিভিন্ন এজেন্সিতে। হঠাৎ করেই আমির খান এবং কাজলের মতো প্রিয় চিত্রতারাকাদের সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন ‘ফানা’ ছবিতে। সেটা ২০০৬ সালের কথা। এমবিএ ডিগ্রী নিয়ে শোবিজে পা রেখেছিলেন তিনি। মডেল হিসেবে ব্যস্ততা ছিল। অনেক এ্যাডে তার উপস্থিতি সাড়া তুলেছিল এক সময়। দীর্ঘদিন তাকে বড় পর্দায় আর দেখা না গেলেও টিভি সিরিয়ালে নিজেকে তুমুল ব্যস্ত রেখেছিলেন।

‘লেফট রাইট লেফট’, ‘কসম সে’, ‘রাধা কি বেটিয়া, কুচ কর দেখায়গি’, ‘কাসোটি জিন্দেগি কে’, ‘মিলে যব হাম তুম’, ‘দিল মিল গায়ে’, ‘ইস পেয়ার কো ক্যায়া নাম দো’, ‘চন্চন্’ প্রভৃতি সিরিয়ালে তার অনবদ্য স্বতঃস্ফূত অভিনয় দর্শকদের বার বার চমকিত এবং মুগ্ধ করেছে। ছোটপর্দা থেকে এসে বলিউডে নায়িকা হয়েছেন অনেকেই। তাদের অনেকেই খ্যাতি ও জনপ্রিয়তার পরিধি বাড়িয়েছেন। আবার কেউ একটি দুটি সিনেমায় কাজ করে বড় পর্দা থেকে একেবারেই হারিয়ে গেছেন। এখন আর তাদের খুঁজে পাওয়া যায় না। কিন্তু তারপরও টিভি সিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের বলিউডে আনাগোনা থেমে নেই। এ সপ্তাহে মুক্তি পাচ্ছে হরর ধাঁচের নতুন বলিউডি সিনেমা ‘ঘোস্ট।’ বিক্রমভাট পরিচালিত ‘ঘোস্ট’ ছবির গল্প আবর্তিত হয়েছে ইংল্যান্ডের পটভূমিকায়। সেখানে প্রবাসী এক ভারতীয় ব্যবসায়ী করন খান্না নিজের স্ত্রীকে খুনের দায়ে অভিযুক্ত হন। আত্মপক সমর্থনের জন্য আইনজীবী সিমরান সিংকে নিয়োগ করেন তিনি। সিমরানকে তিনি জানান, অশরীরী অতিপ্রাকৃত অস্বাভাবিক কোন শক্তি তাকে এই হত্যাকা- ঘটাতে উদ্বুদ্ধ করেছে। সেই শক্তি তাকে আরও হত্যাকা- ঘটাতে বার বার প্ররোচিত করছে। চাঞ্চল্যকর রহস্যময় হত্যাকা-ের মামলাটি পরিচালনা করতে গিয়ে তরুণী আইনজীবী সিমরান সিং রোমহর্ষক নানা ঘটনার মুখোমুখি হয়। তার নিজের জীবন বিপন্ন হয়ে ওঠে ক্রমেই। চরম নাটকীয় শ্বাসরুদ্ধকর ঘটনার মধ্য দিয়ে ‘ঘোস্ট’ ছবির গল্প এগিয়ে যায় চূড়ান্ত পরিণতির দিকে। এখানে সুন্দরী, চৌকস তরুণী আইনজীবী সিমরান সিংয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার এক সময়ে, দারুণ জনপ্রিয় তুখোড় অভিনেত্রী সানায়া ইরানী। নায়িকা হিসেবে বড় পর্দায় এটা তার জন্য বড় ধরনের একটি ব্রেক হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

গত বছর সানায়াকে দুটি সিনেমা ‘ডাম ডাম ডুমরো’ এবং ‘পিকু’তে দেখা গেছে। যদিও সে ছবিগুলো ব্যাপকভাবে দর্শকদের সামনে আসেনি। ফলে তার অভিনীত সে ছবিগুলো দর্শকদের অগোচরে রয়ে গেছে। গত বছর দুটি ওয়েব সিরিজ ভদকা শটস’, এবং ‘জিন্দাবাদ’-এ অভিনয় করেছেন সানায়া ইরানী। মুম্বাইয়ের এক পার্সি পরিবারের মেয়ে সানায়া এমবিএ ডিগ্রী নিয়ে মডেলিং এবং অভিনয়কে পেশা সিহেবে বেছে নিতে দ্বিধা করেননি।

‘মিলে যব হামতুম’ সিরিয়ালের গুঞ্জন এবং ‘ইস পেয়ার কো ক্যায়া নাম দো’ সিরিয়ালের খুশি চরিত্র দুটিতে দুর্দান্ত অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের মন জয় করে নিতে সক্ষম হয়েছেন অনেক আগেই। একজন সুন্দরী নারী হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন বহুবার। অর্জিত সাফল্য ও জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে বলিউডে আরও আগেই ব্যস্ত হতে পারতেন তিনি। কিন্তু তিনি তা করেননি সে সময়ে। তবে এতদিন পর বলিউডে তার নতুন করে পদচারণা কতটা মুখরিত করবে তারই অপেক্ষা।

নির্বাচিত সংবাদ