১৪ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

দিবালার নৈপুণ্যে জুভেন্টাসের জয়

দিবালার নৈপুণ্যে জুভেন্টাসের জয়

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রতিপক্ষের রক্ষণে একচেটিয়া চাপ ধরে রেখেও কাজের কাজ হচ্ছিল না কিছুই। দলের প্রয়োজনের মুহূর্তে নিজেকে মেলে ধরলেন পাওলো দিবালা। দুই মিনিটে দুবার জালে বল পাঠিয়ে গড়ে দিলেন পার্থক্য। লোকোমোতিভ মস্কোকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখলো জুভেন্টাস।

জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে প্রথমার্ধে পিছিয়ে পড়া স্বাগতিকরা ২-১ গোলে জিতেছে।

ম্যাচের শুরুর দিকে কারোর খেলাতেই ছিল না তেমন কোনো ধার। বল দখলে একচেটিয়া আধিপত্য রেখে জুভেন্টাস আক্রমণে চেষ্টা করে গেলেও প্রথমার্ধে উল্লেখযোগ্য কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি।

অনেকটা আচমকাই খেলার ধারার বিপরীতে ৩০তম মিনিটে এগিয়ে যায় অতিথিরা। ডিফেন্ডার লিওনার্দো বোনুচ্চিকে পেছনে ফেলে ডি-বক্সে ঢুকে নেওয়া জোয়াও মারিওর জোরালো শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি; কিন্তু বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বল ফাঁকায় পেয়ে হাফ ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন রুশ মিডফিল্ডার আলেকসেই মিরানচুক।

দ্বিতীয়ার্ধেও একই ছিল ম্যাচের গতিপথ। প্রতিপক্ষের রক্ষণে চাপ ধরে রাখলেও নিশ্চিত সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না জুভেন্টাস। পাঁচ মিনিটের মধ্যে ভালো দুটি সুযোগ পেয়েছিলেন বদলি নামা গনসালো হিগুয়াইন; কিন্তু দুবারই লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে হতাশ করেন তিনি।

এরপরই দেখা যায় দিবালা জাদু। ৭৭তম মিনিটে হুয়ান কুয়াদরাদোর পাস পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বুলেট গতির শটে ঠিকানা খুঁজে নেন তারকা ফরোয়ার্ড।

পরের গোলটিতে ছিল কিছুটা সৌভাগ্যের ছোঁয়া। তবে দিবালার নৈপুণ্যও কোনো অংশে কম নয়। আলেক্স সান্দ্রোর জোরালো দূরপাল্লার শট ঝাঁপিয়ে রুখে দিয়েছিলেন গোলরক্ষক; কিন্তু আলগা বল চলে যায় ফাঁকায় জায়গা করে নেওয়া দিবালার পায়ে। প্রথম ছোঁয়ায় নিচু শটে জয়সূচক গোলটি করেন ২৫ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

তিন ম্যাচে দুই জয় ও এক ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে জুভেন্টাস।

দিনের আগের ম্যাচে আলভারো মোরাতার একমাত্র গোলে বায়ার লেভারকুসেনকে হারানো আতলেতিকো মাদ্রিদ সমান ৭ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে।

৩ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে আছে লোকোমোতিভ মস্কো। লেভারকুসেনের পয়েন্ট শূন্য।

‘এ’ গ্রুপে ক্লাব ব্রুজকে ৫-০ গোলে হারানো ফরাসি চ্যাম্পিয়ন পিএসজি তিন ম্যাচের সবকটিতে জিতে ৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। আর টনি ক্রুসের একমাত্র গোলে তুরস্কের গালাতাসারাইকে হারানো রিয়াল মাদ্রিদ ৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুই নম্বরে।

তিন নম্বরে থাকা ক্লাব ব্রুজের পয়েন্ট ২। ১ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে গালাতাসারাই।

‘বি’ গ্রুপে গ্রিসের দল অলিম্পিয়াকোসের মাঠে ৩-২ গোলে জেতা বায়ার্ন মিউনিখ তিন জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। আরেক ম্যাচে রেড স্টার বেলগ্রেডকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া টটেনহ্যাম হটস্পার ৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে।

৩ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে রেড স্টার বেলগ্রেড। অলিম্পিয়াকোসের পয়েন্ট ১।

‘সি’ গ্রুপে আতালান্তাকে ৫-১ গোলে হারানো ম্যানচেস্টার সিটি তিন ম্যাচে সবকটিতে জিতে ৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে।

শাখতার দোনেৎস্ক ও দিনামো জাগরেবের মধ্যে দিনের আগের ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়। দুটি দলেরই পয়েন্ট সমান ৪ করে। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে ইউক্রেনের শাখতার। আতালান্তার পয়েন্ট ০।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া