০৪ নভেম্বর ২০১৯

ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানল, ট্রাম্পের হুমকি

ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানল, ট্রাম্পের হুমকি

অনলাইন ডেস্ক ॥ ক্যালিফোর্নিয়ার দাবানলের জন্য দেওয়া কেন্দ্রীয় তহবিল হ্রাস করার হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

টুইটারে ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গাভিন নিউসোমের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়ার পর ট্রাম্প এ হুমকি দেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ওই দাবানলে ক্যালিফোর্নিয়ার প্রায় এক লাখ একর এলাকা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এলাকাগুলোর হাজার হাজার বাসিন্দা তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়েছেন।

চলতি বছরের প্রধান কয়েকটি দাবানল বনহীন এলাকাগুলোও পুড়িয়ে দিয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্যালিফোর্নিয়ার ডেমোক্রেটিক গভর্নর নিউসোমকে ‘বন ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার’ জন্য দায়ী করেছেন।

টুইটারে ট্রাম্প লিখেছেন, “প্রতি বছর একই ঘটনা ঘটে, আগুন লাগে আর ক্যালিফোর্নিয়া পুড়ে; তারপর ডলার সহায়তা চাইতে তিনি ফেডারেল সরকারের কাছে আসেন। আর দেওয়া হবে না। গুছিয়ে ভালোভাবে প্রস্তুতি নিন গভর্নর।”

এর জবাবে ট্রাম্পের পরিবেশ নীতির তীব্র সমালোচক নিউসোম বলেন, “আপনি জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বাস করেন না। এই কথোপকথন থেকে আপনাকে মুক্তি দেওয়া হল।”

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল একাডেমি অব সায়েন্সেস সাম্প্রতিক সম্মেলনগুলোতে প্রকাশিত গবেষণা ফলের ভাষ্যানুযায়ী, বৈশ্বিক উষ্ণতার জন্য বেড়ে যাওয়া তাপমাত্রা ক্যালিফোর্নিয়ার ব্যাপক দাবানলের কারণ।

শুষ্ক, উষ্ণ আবহাওয়ার কারণে গাছপালা শুকিয়ে গিয়ে আরও দাহ্য হয়ে পড়ছে।

ক্যালিফোর্নিয়ায় গত বছর দাবানল চলাকালেও ট্রাম্প কেন্দ্রীয় সহায়তা হ্রাস করার হুমকি দিয়েছিলেন। ওই সময় ক্যালিফোর্নিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে প্রাণঘাতী দাবানলে ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

রবিবার ভেঞ্চুরা কাউন্টির দমকল বিভাগ জানিয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া মারিয়া দাবানল অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এনেছেন দমকল কর্মীরা। বৃহস্পতিবার লাগা এই আগুনে ইতোমধ্যে নয় হাজার ৪০০ একরেরও বেশি এলাকা পুড়ে গেছে।

সোনোমা কাউন্টিতে ছড়িয়ে পড়া ক্যালিফোর্নিয়ার সবচেয়ে বড় দাবানল কিনকেইডের ৭৬ শতাংশ নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। ২৩ অক্টোবর শুরু হওয়ার পর থেকে দাবানলটিতে ইতোমধ্যে প্রায় ৮০ হাজার একর এলাকা পুড়ে গেছে।