২০ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেখ কামাল ফুটবলে টিসি স্পোর্টসকে শিরোপা জেতানো মালদ্বীপের নিজাম এখন সাইফের কোচ

 শেখ কামাল ফুটবলে টিসি স্পোর্টসকে শিরোপা জেতানো মালদ্বীপের নিজাম এখন সাইফের কোচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলের অন্যতম প্রতিষ্ঠিত-শক্তিশালী দলগুলোর একটি হচ্ছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। ২০১৬ সালে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে রানার্সআপ হবার সুবাদে তারা সুযোগ পায় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে অংশ নেয়ার। ২০১৭-১৮ মৌসুমে লিগে ১২ দলের মধ্যে চতুর্থ হয়ে যোগ্যতা অর্জন করে এএফসি কাপের বাছাইয়ে খেলার। ২০১৮-১৯ মৌসুমের লিগেও তারা হয় চতুর্থ। সেবারই তারা ভারতে গিয়ে আমন্ত্রণমূলক বদৌসা কাপের শিরোপা জিতে তাক লাগিয়ে দেয়। সাইফই বাংলাদেশের প্রথম এবং এখন পর্যন্ত একমাত্র পেশাদার ক্লাব, যারা মৌসুম শুরুর আগে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করেছে বিদেশের (ভারতে) মাটিতে।

কদিন পরেই শুরুর হতে ২০১৯-২০ ফুটবল মৌসুম। এবার আর চতুর্থ নয়, প্রথম স্থান অধিকারের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে সাইফ। সে লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই দল গুছিয়ে নিয়েছে তারা। দলের হেড কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে মালদ্বীপের সাবেক জাতীয় তারকা ফুটবলার মোহাম্মদ নিজামকে। বৃহস্পতিবার ক্লাবের প্রধান কার্যালয়ে (মহাখালী) এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ক্লাবের পক্ষে ক্লাবের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার নাসিরউদ্দিন চৌধুরী এবং মোহাম্মদ নিজাম এই দুইজনের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পাদিত হয়। চুক্তি স্বাক্ষর সম্পাদন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, প্রধান হিসাবরক্ষক সাইফুল আলম ও ক্লাবের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

সাইফের প্রধান কোচ হিসেবে নিযুক্ত পাওয়া নিজামের আছে তার ১০ বছর ফুটবল খেলোয়াড়ী জীবন ও ১৭ বছরের কোচিং ক্যারিয়ার জীবন। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ক্লাবের হয়ে ৩ বছর (২০১৫-১৬-১৭) মালদ্বীপ প্রিমিয়ার লিগে রানার্সআপ, ২০১৮ সালে চ্যাম্পিয়ন এবং ২০১৭ সালে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। ২০০৭ সালে মালদ্বীপের সেরা ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব পুরস্কার বিজয়ী নিজাম তার এই বর্ণাঢ্য ফুটবল ক্যারিয়ারে মালদ্বীপ ফুটবল ফেডারেশনের বর্ষসেরা কোচ উপাধির জন্য ৬ বার মনোনীত হয়ে ২ বার (২০১৭ ও ২০১৮) পুরস্কারটি জেতেন।

মোহাম্মদ নিজামের ফুটবল কোচিংয়ের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা, অভিজ্ঞ দেশি-বিদেশি কোচিং প্যানেল, পেশাদার খেলোয়াড়, ফুটবলে ব্যবহৃত সর্বাধিক আধুনিক প্রযুক্তি এবং সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের পেশাদারিত্ব মনোভাবের সমন্বয়ে আসন্ন ফুটবল মৌসুমে দেশ-বিদেশ জুড়ে সাইফের অগণিত ফুটবল-ভক্ত ও বাংলাদেশের ফুটবলপ্রেমীদের জন্য অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও আধুনিক ফুটবল খেলা উপহার দিতে পারবে বলে মনে করে সাইফ।