২০ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ওমানের মাসকট ক্লাবের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের দুর্দান্ত জয়

ওমানের মাসকট ক্লাবের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের দুর্দান্ত জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাঁচ দিন পরেই ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ওমানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। মূল লড়াইয়ে নামার আগে প্রস্তুতি ম্যাচে ওমানি লিগের মাসকট ক্লাবকে উড়িয়ে দিয়েছে সফরকারী বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার রাতে ওমান সফরের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে মাসকটকে ৩-১ গোলে হারায় বাংলাদেশ। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ও ২০২৩ সালের এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডে ‘ই’ গ্রুপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে আগামী ১৪ নভেম্বর ওমানের মুখোমুখি হবে জেমি ডের শিষ্যরা।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই দারুণ ছন্দে ছিল বাংলাদেশ। তিন মিনিটের মাথায় দলকে প্রথম সাফল্য এনে দেন ফরোয়ার্ড নাবিব নেওয়াজ জীবন। অবশ্য এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ১৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান তারেক। এর পর বাংলাদেশকে লিড এনে দেন মিডফিল্ডার বিপলু আহমেদ।

প্রথমার্ধে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে দ্বিতীয়ার্ধেও দুর্দান্ত খেলতে থাকে জেমি ডের শিষ্যরা। ম্যাচের ৬৫ মিনিটে আরেকটি গোল করে দলকে নিরাপদ অবস্থানে নিয়ে যান ফরোয়ার্ড তৌহিদুল আলম সবুজ। ম্যাচে বদলি হিসেবে নেমে দারুণভাবে একটি পেনাল্টি রুখে দিয়েছেন গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল।

তবে জিতেও পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন কোচ জেমি ডে। এই ম্যাচে তিনি দুই অর্ধে দুটি একাদশকে মাঠে নামান। ওইদিনই রাতে বাংলাদেশ দলকে দ্য কেভ রেস্টুরেন্টে নিমন্ত্রণ করে সংবর্ধনা দেয়ার পাশাপাশি তাদের নৈশভোজে আপ্যায়িত করে ওমানের বাংলাদেশ সোশ্যাল কম্যুনিটি। এখানে উপস্থিত ছিলেন ওমানে নিযুক্ত বাংলাদেশী দূতাবাসের বিভিন্ন কর্মকর্তা।

জয়ের পর শুক্রবার আর কোন অনুশীলন রাখেননি জেমি। যে কারণে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই আছেন জামাল ভূঁইয়ারা। মূল লড়াইয়ের আগে ওমানের সর্বশেষ পেশাদার লিগে সপ্তম হওয়া দলটির বিপক্ষে এই বড় জয় আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের।

শুক্রবার সকালে প্রায় ঘন্টাখানেক জাতীয় দলের ফুটবলাররা রিকভারিও জিম সেশণ করেছেন। এরপর মাসকট জামে মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেন তারা। ওইদিন ফুটবলারদের কোন ট্রেনিং সেশন রাখেননি জেমি। তবে বিকেলে টিম মিটিং করেছেন। আজ সকালে সুইমিং সেশন করবেন ফুটবলাররা। এরপর বিকেল ৪টায় আবারও অনুশীলনে নেমে পরবেন ঘাম ঝরাতে।

বাংলাদেশ স্কোয়াড ॥ গোলরক্ষক : আশরাফুল ইসলাম রানা, শহীদুল আলম সোহেল ও আনিসুর রহমান জিকো; ডিফেন্ডার : বিশ্বনাথ ঘোষ, রায়হান হাসান, টুটুল হোসেন বাদশা, রহমত মিয়া, ইয়াসিন খান, রিয়াদুল হাসান ও ইয়াসিন আরাফাত; মিডফিল্ডার : জামাল ভূঁইয়া, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, আরিফুর রহমান ও মোহাম্মদ ইব্রাহিম; ফরোয়ার্ড : নাবিব নেওয়াজ জীবন, মাহবুবুর রহমান সুফিল, মতিন মিয়া, সাদ উদ্দিন, তৌহিদুল আলম সবুজ ও রাকিব হোসেন।

নির্বাচিত সংবাদ