১৩ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

করিমগঞ্জের নাম বদলে শ্রীভূমি রাখার প্রস্তাব বিজেপি সাংসদের

ভারতের অসম রাজ্যের করিমগঞ্জের নাম পরিবর্তন করে শ্রীভূমি রাখতে চাইছে দেশটিতে বর্তমান ক্ষমতাসীন কট্টর হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার। এই নাম পরিবর্তন নিয়ে দেশটিতে সমালোচনা শুরু হয়েছে। মোদি সরকার ভারতের অন্য স্থানগুলোর মতো ওই এলাকার মুসলিম ঘরানার নাম পরিবর্তন করতে ষড়যন্ত্র করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। খবর বিবিসি অনলাইনের।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর প্রায় এক শ’ বছর আগে সিলেট সফরের সময় করিমগঞ্জে গিয়েছিলেন। সেই ঘটনার শতবার্ষিকী উৎযাপনের সময় দাবি উঠেছে, তিনি সিলেটকে শ্রীভূমি বলে বর্ণনা করেছিলেন, তাই করিমগঞ্জের নতুন নাম হোক শ্রীভূমি। ভারতীয় জনতা পার্টির একজন বিধায়কের এ দাবিটা জোরালোভাবে জানানোর কারণে বিশ্লেষকদের অনেকেই এতে রাজনীতি দেখছেন। তারা বলছেন যেভাবে নানা শহরের ইসলামিক নাম বিজেপি ক্ষমতায় আসার পরে বদলানো হয়েছে, সেই একই ভাবনা এখানেও কাজ করছে। গত মঙ্গলবার এক সভায় ওই দাবিকে জোরালোভাবে তুলে ধরেন বিজেপি বিধায়ক শিলাদিত্য দেব।

এই দাবি নিয়ে তিনি খুব শীঘ্রই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান। তবে বিশ্লেষদের একাংশ আর বরাক উপত্যকার সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো বলছে করিমগঞ্জের নাম বদলের প্রসঙ্গটি রাজনৈতিক। সাম্প্রদায়িক বিভেদ সৃষ্টির জন্য বিজেপি এই দাবি তুলেছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে।

বরাক উপত্যকা বঙ্গ সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলনের সাধারণ সম্পাদক গৌতম দত্ত বলেন, ‘অসমের বাঙালীরা এখন মহাসঙ্কটের মুখোমুখি। এনআরসি’র মাধ্যমে ১৯ লাখ মানুষ, যাদের মধ্যে সিংহভাগ বাঙালী, তারা রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়ার আশঙ্কায় রয়েছেন। এই সময়ে একটা প্রান্তিক শহরের নাম বদলের প্রস্তাব দেয়াটা একেবারেই অপ্রাসঙ্গিক। আসল সমস্যা থেকে দৃষ্টি ঘুরিয়ে দিতেই করিমগঞ্জের নাম বদলের প্রস্তাব তোলা হয়েছে।

বিশ্লেষক ও দৈনিক যুগশঙ্খ পত্রিকার সম্পাদক অরিজিৎ আদিত্য মনে করছেন যে, এর আগেও যেভাবে নানা শহরের ইসলামিক নাম বদল করেছে বিজেপি, এটাও সেরকমই একটা প্রচেষ্টা। তিনি বলেন, ‘মনে রাখা উচিত যে এই নাম পাল্টানোর যে রাজনীতি বিজেপি শুরু করেছে, তার সঙ্গে স্থানীয় আবেগ জড়িয়ে থাকে। এই ক্ষেত্রে কিন্তু আমাদের কারও কাছে কোনও ইঙ্গিত নেই যে করিমগঞ্জের নাম বদলের প্রস্তাব স্থানীয় মানুষদের মধ্যে থেকে এসেছে।’