১৩ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

গাজীপুরে পোশাক কর্মীকে গলা কেটে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ শ্রীপুরে পোশাক কর্মী এক যুবককে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার দুপুরে নিহতের লাশ স্থানীয় একটি কলাবাগানের কূপ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। তার নাম আরিফুল ইসলাম আসিফ(২০)। সে কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর থানার রামদাস হরিরাম গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে।

জানা গেছে, শ্রীপুর পৌরসভার বহেরারচালা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের বাড়িতে সহকর্মী মেহেদীসহ কয়েকজনের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় মিতালী গ্রুপের কে.এস.এস নিট কম্পোজিট লিমিটেড কারখানায় প্রোডাকশন হেলপার পদে চাকরি করত আসিফ। সে প্রায় দু’মাস আগে কুড়িগ্রাম থেকে এসে ওই কারখানায় চাকরি নেয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কারখানা কর্তৃপক্ষ তাকে অক্টোবর মাসের বেতন পরিশোধ করে। এরপর সে কারখানা থেকে বাসার উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে নিখোঁজ হয়। শুক্রবার সকালে পাশর্^বর্তী আলাল উদ্দিন ভূইয়ার কলাবাগানের শ্রমিকরা কাজ করতে গিয়ে বাগানের পাশে রক্ত ও রক্তমাখা একটি ছোরা পড়ে থাকতে দেখে। তারা রক্তের উৎস খুঁজতে গিয়ে বাগানের পাশের একটি কূপে কলাপাতা দিয়ে ঢেকে রাখা আসিফের গলাকাটা লাশ দেখতে পায়। ওই বাগানে পানি দেয়ার জন্য ১০/১২ ফুট গভীর করে কূপটি খনন করা হয়েছিল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছুরিটিও উদ্ধার করে।

টঙ্গীতে যুবক

নিজস্ব সংবাদদাতা টঙ্গী থেকে জানান, মোক্তার বাড়ি জামতলা এলাকায় আল আমিন (৩৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে একদল দুর্বৃত্ত। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের দেশের বাড়ি কুমিল্লা জেলার বাঙ্গুরা থানার দৌলতপুর গ্রামে। পিতার নাম সরু মিয়া। এ ঘটনায় হাবিব নামে এক যুবককে পুলিশ আটক করেছে। ঘটনাস্থলের কয়েক দোকানদার জনকণ্ঠকে জানান, রাতে ৪/৫ জন ছেলে হাতে লাঠিসোঁটা, রামদা নিয়ে দৌড়ে এসে আল আমিনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে টঙ্গীর হোসেন মার্কেট ঢাকা ইম্মেরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যায়। গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু ঘটে।