১৫ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্থলবন্দর ব্যবহার করে বাংলাদেশ ভারত বাণিজ্য বৃদ্ধির উদ্যোগ

  • ময়মনসিংহে কনরাড সাংমা

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড কে সাংমা বলেছেন, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট ও শেরপুরের নাকুগাঁও স্থলবন্দর ব্যবহার করে দু’দেশের আমদানি-রফতানির বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সুবিধা কিভাবে বাড়ানো যায় তা দেখতে তিনি বাংলাদেশ সফরে এসেছেন। এই ক্ষেত্রে যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ ছোটখাট অন্য সমস্যা সমাধান করতেই ভারত সরকারের পক্ষে তার এই সফর বলে জানান।

মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী সিলেট সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসার চারদিনের মাথায় রাজধানী ঢাকা হয়ে শুক্রবার বিকেলে ময়মনসিংহ আসেন। তিনি এ সময় ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটুর সঙ্গে মতবিনিময় করেন এবং নগরীর দুর্গাবাড়ি মন্দির পরিদর্শন করেন। দুর্গাবাড়ি মন্দির পরিদর্শন শেষে তিনি স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

চারদিন ধরে সড়ক পথে ৮০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেয়ার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, বাণিজ্য ও সম্পর্ক বাড়াতে কী করা যেতে পারে সেটি দেখতেই তিনি এসেছেন। ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী হালুয়াঘাট স্থলবন্দর হয়ে ইমেগ্রেশন সুবিধা চালুর সম্ভাব্যতা নিয়েও কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, এটি ভারত সরকারের বিবেচনায় রয়েছে। ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ সময় পুরনো ব্রহ্মপুত্র নদ খননের কথা উল্লেখপূর্বক জলপথ ব্যবহার করে দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্য প্রসারের প্রস্তাব করেন। এ ছাড়া শেরপুরের নাকুগাঁও ও ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট স্থলবন্দর দিয়ে কয়লা ও পাথর আমদানির ক্ষেত্রে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের হয়রানির বন্ধে উদ্যোগ নেয়ার অনুরোধ জানান। মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী বিষয়টি গিয়ে দেখবেন বলে আশ্বাস দেন। নগর ভবনে মতবিনিময় ও দুর্গাবাড়ি মন্দির পরিদর্শনের সময় সিটি কর্পোররেশনের প্রধান নির্বাহী আনোয়ার হোসেনসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচিত সংবাদ