১৯ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নারী রেফারিদের নিয়ে দেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফিফা এমএ কোর্স

নারী রেফারিদের নিয়ে দেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফিফা এমএ কোর্স

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নারী রেফারিদের নিয়ে দেশে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফিফা এম এ কোর্স। বিভিন্ন জেলা শহর থেকে যেখানে অংশ নিচ্ছেন ২৫ প্রশিক্ষণার্থী। প্রতিদিন দুই বেলা করে চলছে শিক্ষাগ্রহণ। এর মধ্য দিয়ে নারী রেফারিরা স্বপ্ন দেখছেন আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনার। তাদের এমন স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ফিফা রেফারিরা।

এই সুযোগটা এবারই প্রথম পেয়েছে নারী ফুটবল রেফারিরা। ফিফা থেকে এসেছেন দুই প্রশিক্ষক। তাদের তত্বাবধানে নিজেদের ভুল ত্রুটিগুলো শোধরানো আর নতুন কিছু শেখার প্রাণান্ত চেষ্টা। নারী ফুটবলে জাগরণের পর রেফারিংয়েও যেন তার ছোঁয়া।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের করে দেয়া এই সুযোগ লুফে নিয়েছেন ২৫ রেফারি। পারফরমেন্সের ওপর ভিত্তি করে যাদের বাছাই করা হয়েছে বিভিন্ন জেলা থেকে। পাঁচ দিনের এই ক্যাম্প। যা নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত প্রশিক্ষণার্থীরা।

প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া এক নারী রেফারি বলেন, এটাই প্রথম নারী রেফারির কোর্স। এখানে যদি আমরা সবাই ভালো করতে পারি তাহলে সেটা আমাদের জন্যে ভালো হবে।

নারী রেফারিদের এই এমএ কোর্স হচ্ছে দুই ভাগে। এক ধাপে তাত্মিক ক্লাসে অংশ নিচ্ছেন তারা। সেখান থেকে কি শিখলেন প্রশিক্ষানার্থীরা তারই প্রমাণ দিতে হচ্ছে পরের ধাপে। সব মিলিয়ে ছাত্রদের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণে বেশ উচ্ছ্বসিত বিদেশী প্রশিক্ষকরা।

ফিফা রেফারি মারিসা ভিয়া বলেন, সত্যি বলতে তোমাদের ফুটবল সম্পর্কে আমার তেমন কোন ধারনাই ছিল না। কিন্তু এখানে এসে আমি চমকিত হয়েছি। নারী ফুটবলে যে বাংলাদেশ এত এগিয়েছে তা সত্যিই বিস্ময়কর। আমিও ওদের অনুপ্রাণিত করছি। কেননা আমি একটা গ্রামে জন্ম নিয়েও আজ এই পর্যায়ে এসেছি। তাহলে ওরা কেন পারবে না। তাছাড়া ওরা দারুণ মেধাবী।

আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনার জন্য গেল আগস্টে সালমা আক্তার ও জয় চাকমা ফিফার মনোনয়ন পেয়েছিলেন। এখনও চলছে তার যাচাই-বাছাই।