১২ নভেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ সিরিজ জয়ের স্বপ্ন পূরণ হবে টাইগারদের?

আজ সিরিজ জয়ের স্বপ্ন পূরণ হবে টাইগারদের?

মিথুন আশরাফ ॥ ভারতের বিরুদ্ধে শিরোপা জয়ের ম্যাচ মানেই বাংলাদেশের আতঙ্ক। এখন পর্যন্ত যে ভারতের বিরুদ্ধে শিরোপা জয়ের ম্যাচে কখনই জিততে পারেনি বাংলাদেশ। সেই আতঙ্ক জয় করে আজ ম্যাচ জিতে, সিরিজ জয় নিশ্চিত করে, শিরোপা উঁচিয়ে ধরার স্বপ্ন পূরণ করতে পারবে টাইগাররা? আজ বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার টি২০ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি২০ অনুষ্ঠিত হবে। অঘোষিত ফাইনালে পরিণত হয়ে গেছে ম্যাচটি। যে দল জিতবে তারাই সিরিজের শিরোপা ঘরে তুলবে। নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট এ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে আজ রাত সাড়ে সাতটায় সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি২০ ম্যাচ শুরু হবে।

ভারতের বিরুদ্ধে প্রথমবারের মতো পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজের দুটি ম্যাচ শেষ হয়েছে। প্রথম টি২০ ৭ উইকেটে বাংলাদেশ জিতে নিয়েছে। দ্বিতীয় টি২০ ৮ উইকেটে জিতেছে ভারত। সিরিজে এখন আছে ১-১ সমতা। তাতে করে আজ ম্যাচটিতে যে দল জিতবে শিরোপা তারাই উঁচিয়ে ধরবে। বাংলাদেশ কী পারবে শিরোপা জিততে?

এর আগে ভারতের বিরুদ্ধে তিনবার ফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ। একবারও শিরোপা জিততে পারেনি। এর মধ্যে দুইবার টি২০ ফাইনাল খেলেছে। ২০১৬ সালে টি২০ এশিয়া কাপের ফাইনালে ৭ বল বাকি থাকতে ৮ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। এরপর ২০১৮ সালে শ্রীলঙ্কায় হওয়া টি২০ নিদাহাস ট্রফির ফাইনালেও হেরেছে বাংলাদেশ। এবার শেষ বলে গিয়ে হার হয়েছে। ৪ উইকেটে জিতেছে ভারত। তবে নিশ্চিত জয়ের ম্যাচ হাতছাড়া হয়েছে। শেষ বলে জিততে ৫ রান দরকার ছিল ভারতের। ছক্কা হাঁকান দীনেশ কার্তিক। একই বছর দুবাইয়েও একই ঘটনা ঘটে। ওয়ানডে এশিয়া কাপের ফাইনালে গিয়ে শেষ বলে হারে বাংলাদেশ। এবার ভারত ৩ উইকেটে জিতে। প্রতিবার ফাইনালে জেতার সুযোগ কাজে লাগানো যায়নি। শেষ মুহূর্তে গিয়ে হার হয়েছে। এবার কী সেই গোলকধাঁধা থেকে মুক্ত হতে পারবে বাংলাদেশ? খুবই সম্ভব। যদি স্থায়ুচাপে না পড়েন ক্রিকেটাররা। শিরোপা জেতার ম্যাচ আসলেই কেমন যেন স্থায়ুচাপ ভর করে বসে। এই চাপ এখন সামলানো গেলেই হলো।

শুধু ভারতের বিরুদ্ধেই নয়, শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ মানেই যেন টাইগারদের ঘাড়ে ভূত ভর করে বসে। ভারতের বিরুদ্ধে তিনটি ম্যাচের সঙ্গে ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে তিনজাতি সিরিজের ফাইনালে, ২০১২ সালের ওয়ানডে এশিয়া কাপের ফাইনালে, ২০১৮ সালে আবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে তিনজাতি সিরিজের ফাইনালে গিয়ে হেরে যায় বাংলাদেশ। ফাইনালে এসেই খেই হারিয়ে ফেলে।

তিন ম্যাচের দ্বিপক্ষীয় সিরিজেও এমন কয়েকবার হয়েছে। প্রথম দুই ম্যাচে ১-১ সমতা নিয়ে তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নেমে হারে বাংলাদেশ। আর সিরিজ জেতা হয়নি। ২০০৪ সালে ভারতের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে প্রথমবার এমনটি হয়েছে। এরপর ২০০৬ সালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেও ওয়ানডে সিরিজে একইরকম হয়েছে। ২০০৮ সালে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধেও ওয়ানডে সিরিজে একই দশা হয়। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজেও একই পথের পথিক হয় বাংলাদেশ। ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজেও একই রকম হয়। তবে এ বছর বিশ্বকাপের আগে তিনজাতি সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ফাইনালে হারিয়ে যে শিরোপা জেতার ম্যাচে জেতা যায় সেই আত্মবিশ্বাস তৈরি হয়েছে।

এর বাইরে দ্বিপক্ষীয় সিরিজে ২০১৫ সালে যে পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে এমন পরিস্থিতি থেকে ওয়ানডে সিরিজ জিতে নেয়া গেছে, তাও কাজে দিতে পারে। এ বছর শিরোপা জিতে বাংলাদেশ। যা পুরুষ ক্রিকেটারদের দেশকে দেয়া সেরা উপহার হয়ে থাকে। প্রথমবারের মতো দুইয়ের অধিক দলের সমন্বয়ে হওয়া কোন সিরিজ বা টুর্নামেন্টের শিরোপা জয় করে বাংলাদেশ। এই জয়টি বাংলাদেশকে আজকের ম্যাচের জন্যও অনুপ্রেরণা দিতে পারে। তবে ২০১৫ সালে যে ভারতকে দেশের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজে হারিয়েছিল বাংলাদেশ, সেটিই স্মৃতিকে নাড়া দিতে পারে। যেভাবে দাপট দেখিয়ে বাংলাদেশ সিরিজ জিতেছিল, সেই দাপট যদি আজও বজায় থাকে তাহলে সিরিজ জেতা সম্ভব হবে। এবার সিরিজের প্রথম টি২০তে যে নৈপুণ্য দেখিয়েছে টাইগাররা তা যদি আজ দেখানো যায়, তাহলে ভারতের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজ জিতে সিরিজের শিরোপা উঁচিয়ে ধরাও সম্ভব হবে। সেই সঙ্গে ভারতের মাটিতে প্রথমবারের মতো পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে গিয়েই সিরিজ জয়ের ইতিহাসও গড়বে বাংলাদেশ।

টি২০তে এখন পর্যন্ত কোন শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ জিততে পারেনি বাংলাদেশ। এ বছর সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তিনজাতি সিরিজের ফাইনাল ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে হয়নি। তাই শিরোপা ভাগাভাগি হয়েছে। এমনকি দ্বিপক্ষীয় সিরিজে শুধু ওয়েস্ট ইন্ডিজকেই গত বছর একবার হারানো গেছে। এবার বাংলাদেশের সামনে ভারতের মতো শক্তিশালী দলকে সিরিজে হারানোর সুযোগ ধরা দিয়েছে। পারবে বাংলাদেশ সিরিজ জিতে শিরোপা ঘরে তুলতে?

নির্বাচিত সংবাদ